top of page

অবশেষে সৎকার শুরু শ্মশানে, নথি খতিয়ে দেখে সম্মতি

অবশেষে দাহ কার্য শুরু হল পুরাতন মালদার লোলাবাগ এলাকার শ্মশানের বৈদ্যুতিক চুল্লিতে। মঙ্গলবার দুপুরে মেডিকেল কলেজের মর্গে থাকা একটি অপরিচিত মৃতদেহ ওই বৈদ্যুতিক চুল্লিতে দাহ করা হয়৷ দাহ করার আগে স্থানীয় বাসিন্দারা ওই ব্যক্তির মৃত্যুর সমস্ত নথি খতিয়ে দেখেন৷


উল্লেখ্য, লোলাবাগ এলাকার শ্মশানে কোভিড আক্রান্ত মৃতদেহ দাহ করা নিয়ে সোমবার তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে ছিল পুরাতন মালদায়। রাস্তায় আটকে অবরোধ করেছিলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। অবশেষে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে আজ অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তির মৃতদেহ দাহ করা হয় শ্মশানের বৈদ্যুতিক চুল্লিতে। স্থানীয় বাসিন্দারা ওই ব্যক্তির মৃত্যুর সমস্ত নথি খতিয়ে দেখে মৃতদেহ দাহ করতে দেন৷


স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, এদিন সকালে একটি মৃতদেহ নিয়ে আসা হয়েছিল। আমরা কাগজে দেখেছি ২০১৯ সালের ৩০ এপ্রিল থেকে এই মৃতদেহটি মালদা মেডিকেল কলেজের মর্গে সংরক্ষিত করে রাখা ছিল। এদিন সেই মৃতদেহটি দাহ করা হয়েছে৷ সমস্ত কাগজ আমরা খতিয়ে দেখেই মৃতদেহটি দাহ করতে দেওয়া হয়েছে৷

পুরাতন মালদা পুরসভার চেয়ারম্যান কার্তিক ঘোষ জানান, চলতি বছর ১২ মার্চ এই বৈদ্যুতিক চুল্লিটি উদ্বোধন হয়েছিল। এরপর পলিউশন দফতরের শংসাপত্রের জন্যই দাহের কাজ শুরু করা যায়নি। সেই অনুমতি পাওয়ার পর মঙ্গলবার একটি মৃতদেহ পুড়িয়ে চুল্লির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার থেকেই পুরাতন মালদার লোলাবাগ এলাকার এই বৈদ্যুতিক চুল্লিটি আপাতত চালু করে দেওয়া হল।




টপিকঃ #Crematorium #Lockdown

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page