top of page

সিল করা হল ফাঁড়ি! কোয়রান্টিনে রথবাড়ির পুলিশকর্মীরা

জেলায় প্রথম কোভিড আক্রান্তের খবর মিলতেই সংক্রমণের আশঙ্কায় রথবাড়ি ফাঁড়ি সিল করে দেওয়া হয়েছে। ফাঁড়িতে থাকা পুলিশকর্মীদেরও বর্তমানে ফাঁড়িতেই কোয়ারান্টিনে রাখা হয়েছে৷


পুলিশসূত্রে জানা গেছে, এই ফাঁড়ি থেকেই পুলিশকর্মীদের পাঠানো হয়েছিল মানিকচকের নারিদিয়ারা নতুনটোলা গ্রামে৷ করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তিকে সরকারি কোয়রান্টিন সেন্টারে নিয়ে যান রথবাড়ি ফাঁড়ির পুলিশকর্মীরা৷ ওই শ্রমিকের লালারসে কোভিড১৯-এর উপস্থিতি পাওয়ার পর গতকালই সিল করে দেওয়া হয়েছে ফাঁড়ি৷ রথবাড়ি পুলিশ ফাঁড়িতে এই মুহূর্তে পুলিশকর্মী ও সিভিক ভলান্টিয়ার মিলিয়ে ১১ জন কর্মরত৷ ওই পুলিশকর্মী ও সিভিক ভলান্টিয়ারদের আপাতত ফাঁড়িতেই রাখা হয়েছে৷




পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানান, ওই ফাঁড়ির কয়েকজন পুলিশকর্মী ওই শ্রমিকের সেকেন্ডারি সংস্পর্শে এসেছিলেন৷ তাই সতর্কতার জন্য তাঁদের হোম কোয়রান্টিনে থাকতে বলা হয়েছে৷ তবে ফাঁড়ি সিল করা হয়নি৷

যদিও রথবাড়ি ফাঁড়ি সংলগ্ন এলাকায় থাকা পুলিশকর্মীদের দাবি রথবাড়ি ফাঁড়ি সিল করে দেওয়া হয়েছে।


Σχόλια


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page