top of page

চাষিদের উৎসাহ বাড়াতে স্কুলেই পদ্ম চাষ

ভারতের জাতীয় ফুল পদ্ম। এক সময় মালদা জেলাতে বিভিন্ন প্রজাতির পদ্ম চাষ হত। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে হারিয়ে যেতে বসেছে পদ্ম চাষ। দুর্গা পুজোয় পদ্মের জোগান দিতে ভিন জেলা থেকে চাষিরা পদ্ম নিয়ে আসেন। চাষিদের পদ্ম চাষে উৎসাহ দিতে এগিয়ে এসেছে পুরাতন মালদার কালাচাঁদ হাইস্কুল। স্কুল কর্তৃপক্ষ স্কুল চত্বরেই পদ্ম চাষ শুরু করেছে।


স্কুলের উদ্ভিদবিদ্যার শিক্ষক ড. কমলকৃষ্ণ দাস প্রথম এই চিন্তা করেন। সেই থেকেই স্কুল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় চলছে পদ্ম চাষ। কমলবাবু জানান, একসময় মালদা জেলায় নীলাম্ব নুসিফেরা প্রজাতির পদ্মের ভালো চাষ হত৷ এখন আর হয় না৷ পদ্মের চাষ করলে সেই দিঘি কিংবা জলাশয়ে মাছ চাষ করা যায় না৷ কিন্তু পদ্মের তুলনায় মাছের চাষ করা চাষিদের কাছে বেশি লাভদায়ক৷ সংসার চালাতে চাষিরা নিজেদের পেশা বদল করে ফেলেছেন৷ এতে পদ্মের এই প্রজাতিটি বিপন্ন হতে চলেছে৷ পদ্মের এই প্রজাতিকে সংরক্ষণ করার জন্য স্কুলের তরফে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রায় সাত মাস আগে এই কাজ শুরু করা হয়। ট্যাংক তৈরি করে, পাঁকের জন্য নদীর মাটি আর গোবর সার মিশিয়ে রাখতে হয়েছে৷ তারপর পদ্মের কন্দ বসানো হয়েছে৷ ট্যাংকের জমা জল থেকে মশা বৃদ্ধির আশঙ্কায় গাপ্পি মাছ ছাড়া হয়েছে।


Lotus-cultivation-is-being-done-in-kalachand-high-school
স্কুলেই চাষ হচ্ছে পদ্ম। সংবাদচিত্র।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক রাহুলরঞ্জন দাস জানান,

বিপন্ন প্রায় একটি প্রজাতির পদ্ম ফুলের সংস্করণ করার চেষ্টায় এই উদ্যোগ। এই উদ্যোগে স্কুলের পড়ুয়ারাও জলজ উদ্ভিদের অভিযোজন এবং জলজ বাস্তুতন্ত্রের পরিচিতি পাবে৷ পাশাপাশি এতে স্কুলের সৌন্দর্য অনেকটা বেড়ে যাবে।

আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Komentar


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page