top of page

দ্বিতীয় বিয়ে আটকাতে শ্বশুরবাড়ির সামনে ধরনায় স্ত্রী, আত্মহত্যা হুমকি

বিয়ে করে স্ত্রীকে ঘরে তুলতে রাজি হননি স্বামী। তাই নিজের মর্যাদা পেতে স্বামীর বাড়ির সামনে ধরনায় বসলেন স্ত্রী। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে পুলিশ। এদিকে, গত কয়েকদিন ধরে এলাকায় দেখা মেলেনি অভিযুক্ত স্বামীর। ঘটনাটি ঘটেছে রতুয়া ১ ব্লকের সামসীর সোহরাতলা এলাকায়।



ধরনায় বসেছেন নাসিমা খাতুন (২২)৷ বাড়ি রতুয়া ২ ব্লকের সম্বলপুর গ্রামে৷ জানা গিয়েছে, প্রায় আট মাস আগে সামসীতে তাঁর পরিচয় হয় সোহরাতলা গ্রামের যুবক সাহেব শেখের সঙ্গে৷ প্রায় পাঁচমাস আগে সাহেব তাঁকে বিয়ে করেন৷ নাসিমার অভিযোগ, বিয়ের পর সাহেব তাঁকে এক বন্ধুর বাড়িতে রাখে৷ সেখানে তাঁরা প্রায় একমাস একসঙ্গে কাটান৷ তারপর ভাড়াবাড়িতে তাঁরা দেড়মাস একসঙ্গে কাটান৷ এরপরেই সাহেব তাঁকে বলে, সে তাঁকে তালাক দেবে৷ তিনি এনিয়ে ঝামেলা শুরু করায় সে ওই ভাড়াবাড়িতে তাঁকে রেখে পালিয়ে যায় সাহেব৷ তিনি জানতে পারেন, তার বাড়ির লোকজন অন্য জায়গায় তার বিয়ে ঠিক করেছে৷ বাধ্য হয়ে তিনি সাহেবের বাড়ির সামনে ধরনায় বসেছেন৷ যতক্ষণ না তাঁকে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়ে স্বামীর ঘরে তোলা হচ্ছে, ততক্ষণ তিনি এখানেই বসে থাকবেন৷ তা না হলে তিনি আত্মহত্যা করবেন৷




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page