top of page

করোনার বিষ দাঁত ভেঙে শুরু হচ্ছে বইমেলা

করোনার বিষ দাঁত ভেঙে জোড়া বইমেলার আয়োজন হচ্ছে মালদায়। মালদা শহরের পাশাপাশি এবার চাঁচলেও সরকারি উদ্যোগে বইমেলা হবে। মালদা শহরেও বইমেলার স্থান বদলেছে। মালদা কলেজ মাঠ, নদীর চর হয়ে এবার বইমেলা হচ্ছে রামকৃষ্ণ মিশনের উলটো দিকের মাঠে।



করোনার ভয় দূরে সরিয়ে জেলায় ভ্যাকসিনও এসে গেছে। তবু কোনোরকম ঝুঁকি নিতে নারাজ প্রশাসন। প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বইমেলায় মাস্ক ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না। তবে প্রবেশমূল্য ছাড়াই জেলা বইমেলায় প্রবেশ করা যাবে।


কলকাতায় গিল্ডের উদ্যোগে আয়োজিত বইমেলা না হলেও মালদা বইপ্রেমীদের হতাশ করেনি। বইমেলা হওয়ার খবরে খুশি বইপ্রেমীরা। বইমেলা স্মরণিকা কমিটির সভায় থাকা মালদা কলেজের অধ্যাপিকা দীপাঞ্জনা শর্মা জানান, বইমেলা হচ্ছে, এটা স্বাভাবিকভাবেই খুশির খবর। বইয়ের সঙ্গে একটা আলাদা সম্পর্ক আছে। আর নতুন বইয়ের ব্যাপারটাই আলাদা। বইমেলা নিয়ে অনেক আশায় রয়েছেন অভিভাবিকা পিঙ্কি সাহা। বললেন, ছেলের জন্য কয়েকটা ভালো গল্পের বই কিনব। কলকাতা থেকে বড়ো বড়ো প্রকাশনা সংস্থা আসছে। অনেক বই পাব।




এবার রাজ্য সরকারের উদ্যোগে মালদা জেলা বইমেলা ১৯ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে। রামকৃষ্ণ মিশন রোড এবং যুব আবাস সংলগ্ন ময়দানে ৩২ তম জেলা বইমেলা ও প্রদর্শনীর আসর বসতে চলেছে। বিশিষ্ট সাহিত্যিক আবুল বাশারের হাত ধরে বইমেলার সূচনা হবে। ২৪ জানুয়ারি বইমেলার শেষদিনে থাকবেন গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরি। রামকৃষ্ণ মিশন বিবেকানন্দ বিদ্যামন্দির সংলগ্ন মাঠে এবছরই প্রথম বইমেলা হচ্ছে। বইমেলার জন্য এই মাঠটি একেবারেই নতুন। তাই মাঠ সংস্কার করে বইমেলার পরিকাঠামো গড়ে তোলার জন্য প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। বইমেলা কমিটির পক্ষে জানানো হয়েছে, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বইমেলা সফলভাবে করার চেষ্টা চলছে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page