top of page

বেদখল স্কুল মাঠ ফিরে পেতে প্রশাসনে আর্জি হেডমাস্টারের

উত্তর মালদার ঐতিহ্যবাহী সিদ্ধেশ্বরী ইন্সটিটিউশনের মাঠে পা রেখেছিলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। আজ সেই মাঠ অবহেলায় পড়ে রয়েছে, মাঠের অধিকাংশ জায়গা দখল করে মজুত করা হয়েছে ঠিকাদার সংস্থার নির্মাণ সরঞ্জাম। মাঠে তৈরি হয়েছে একটি অস্থায়ী বাসস্ট্যান্ড। স্কুল কর্তৃপক্ষের অজান্তে মাঠটি প্রায় বেহাত হওয়ার যোগাড়। অবিলম্বে মাঠ ফিরে পেতে প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন প্রধান শিক্ষক।



শহরের ঘন জনবসতির মাঝে রয়েছে এই এক টুকরো সবুজ মাঠ। চাঁচলের ঐতিহ্যবাহী সিদ্ধেশ্বরী ইন্সটিটিউশনের একমাত্র মাঠ এটি। সেই মাঠে মাস তিনেকের বেশি সময় ধরে দখল করে অবৈধভাবে রাখা হয়েছে ঠিকাদার সংস্থার বালি, পাথর, চিপস সহ নানান গৃহ নির্মাণের নানান সরঞ্জাম। ফলে সমস্যায় স্কুলের পড়ুয়া থেকে শুরু করে স্থানীয়রা। চরম সমস্যায় পড়তে হচ্ছে খেলোয়াড়দের। অবিলম্বে মাঠ দখলমুক্ত করার দাবি তুলেছেন মাঠে আসা খেলোয়াড় ও প্রাতর্ভ্রমণকারীরা। শুধু তাই নয় সেই মাঠে ঠিকাদার সংস্থার বালি-পাথর রাখা ছাড়াও তৈরি হয়েছে অস্থায়ী একটি বাসস্ট্যান্ড। সেখানে প্রতিদিন অটো, টোটো, ভটভটি থেকে শুরু করে চার চাকা বিশিষ্ট যানবাহন সারসার দাঁড়িয়ে থাকে। এখন মাঠে পা বাড়ানোর জো নেই কারও। স্থানীয়দের অভিযোগ মাঠ প্রাঙ্গণে চলছে অবৈধ কারবার।



এই বিষয়ে চাঁচল সিদ্ধেশ্বরী ইন্সটিটিউশনের প্রধান শিক্ষক আশরাফুল হক বলেন, স্কুলের পক্ষ থেকে মাঠের এক প্রান্তে একটি নোটিশ বোর্ড ঝোলানো হয়েছে, তাতে বলা রয়েছে বিনা অনুমতিতে মাঠ প্রাঙ্গণে যদি কেউ জিনিসপত্র রাখে তবে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। কিন্তু সেই নির্দেশকে অমান্য করে আমাদের স্কুলের মাঠে বালি, পাথর রাখা হচ্ছে। এ ব্যাপারে মহকুমাশাসক ও বিডিওকে বহুবার অভিযোগ জানানো হয়েছে। এই বিষয়ে প্রশাসনের সহযোগিতা চাই।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page