top of page

পুত্রবধূর সম্মান বাঁচাতে গিয়ে মাথা ফাটল শ্বশুরের

পুত্রবধূর সম্মান বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন প্রৌঢ়৷ আক্রান্ত প্রৌঢ় বর্তমানে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন৷ গতকাল রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মানিকচক থানার মথুরাপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। গোটা ঘটনায় ৭ জনের বিরুদ্ধে মানিকচক থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে৷ তবে অভিযুক্তরা পলাতক৷ তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে মানিকচক থানার পুলিশ৷


পুত্রবধূর সম্মান বাঁচাতে গিয়ে মাথা ফাটল শ্বশুরের

জানা গেছে, আক্রান্ত প্রৌঢ়র প্রতিবেশী দানেশ শেখ, আয়েশ শেখরা প্রৌঢ়র বাড়ির পাশে একটি গলি খোঁড়াখুঁড়ি করতে শুরু করে৷ দানেশদের গলি খুঁড়তে বাধা দেন ওই যুবতি। তিনি দানেশদের জানান, ‘গলিটি তাঁদের জায়গার অন্তর্গত।’ বাধা পেয়েই দানেশরা ওই যুবতিকে মারধর শুরু করে৷ তাঁর শ্লীলতাহানি করে৷ সেই সময় বাড়িতে ছিলেন তাঁর ৮০ বছরের বৃদ্ধ বাবা৷ তিনি পুত্রবধূকে রক্ষা করতে এগিয়ে যান৷ তখনই দানেশ, আয়েশ সহ তাদের দলবল শাবল ও ইট নিয়ে প্রৌঢ়ের ওপর চড়াও হয়৷ মাথা ফাটিয়ে দেয় তারা৷ সেই খবর জানতে পেরে বাড়ি ছুটে যান ওই যুবতীর স্বামী৷ রক্তাক্ত অবস্থায় প্রৌঢ়কে নিয়ে যান স্থানীয় মানিকচক গ্রামীণ হাসপাতালে৷ সেখান থেকে তাঁকে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করে দেওয়া হয়। গতকাল রাতেই এই ঘটনায় ৭ জনের বিরুদ্ধে মানিকচক থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে।

মানিকচক থানার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল রাতেই ওই গ্রামে অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হয়েছে৷ অভিযুক্তরা পলাতক। তবে তাদের খোঁজে তল্লাশি জারি রয়েছে৷


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

ছবিটি প্রতীকী।

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page