top of page

তীব্র বিস্ফোরণ সুজাপুরের প্লাস্টিক কারখানায়

সুজাপুরে প্লাস্টিক কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ। এখনও পর্যন্ত পাঁচজন মৃতের খোঁজ পাওয়া গেছে। আরও পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁদের চিকিৎসার জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে ভরতি করা হয়েছে। এই বিস্ফোরণের তীব্রতা এতটাই ছিল যে, আশপাশের এলাকা কেঁপে ওঠে। আতঙ্কিত হয়ে পরে এলাকার লোকজন।



বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা নাগাদ কালিয়াচক থানার সুজাপুর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন স্কুলপাড়ায় একটি প্লাস্টিক কারখানায় ঘটে এই বিস্ফোরণ। ধূলিসাৎ হয়ে গিয়েছে প্লাস্টিক কারখানাটি। এই সময় বিকট শব্দে কেঁপে উঠে গোটা এলাকা। আতঙ্কিত হয়ে পড়ে স্থানীয় লোকজন। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এই কারখানার দুইজন মালিক। এক মালিকের নাম আমিলু শেখ। কারখানায় পুরুষ শ্রমিকের পাশাপাশি অনেক মহিলাও কাজ করত। বিস্ফোরণে মৃত্যু হয়েছে পাঁচজনের, আশঙ্কাজনক আরও পাঁচজন। অন্যান্য আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। চিকিৎসকদের মতে, আহতের সংখ্যাটি আরও বাড়তে পারে।


জেলার পুলিশসুপার অলোক রাজোরিয়া জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের ফলে মৃত্যু হয়েছে কারখানায় কর্মরত পাঁচজন শ্রমিকের। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আরও পাঁচজনকে মালদা মেডিকেল কলেজে ভরতি করা হয়েছে। বিস্ফোরণের কারণ খতিয়ে দেখতে বিশেষজ্ঞ টিম ডেকে পাঠানো হয়েছে। তাঁরা নমুনা সংগ্রহ করতে শীঘ্রই মালদায় আসবে। কারখানায় কর্মরত শ্রমিকের সংখ্যা তিনি নিশ্চিতভাবে না জানাতে পারলেও তিনি অনুমান করছেন অন্তত ২০ জন কর্মী এখানে কাজ করত। এই বিস্ফোরণের ঘটনায় কোনো নাশকতা জড়িত আছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হবে বলে তিনি জানালেন।



জেলার উচ্চপদস্থ পুলিশকর্তারা ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছেছেন। বিস্ফোরণের ঘটনার কথা জানতে পেরে, গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর নির্দেশে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছেছেন জেলাশাসক ও প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরি। বিস্ফোরণের সঠিক কারণ জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।



আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page