top of page

মুখ্যমন্ত্রীকে শূর্পণখা বলে কটাক্ষ, বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে এফআইআর

গতকাল রতুয়ার একটি সভায় নাম না করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে শূর্পণখা বলে কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য মুখপাত্র তথা কলকাতা কর্পোরেশনের কাউন্সিলর সজল ঘোষ৷ তাঁর এই মন্তব্যের জন্য আজ তাঁর বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করলেন ব্লক তৃণমূল সভাপতি।


উল্লেখ্য, পঞ্চায়েত নির্বাচনকে সামনে রেখে গতকাল সন্ধেয় রতুয়ার কাহালা হাইস্কুলে একটি কর্মীসভার আয়োজন করে বিজেপি৷ সজলবাবু ছাড়াও সেখানে উপস্থিত ছিলেন উত্তর মালদার সাংসদ খগেন মুর্মু, দলীয় বিধায়ক শঙ্কর ঘোষ, গোপালচন্দ্র সাহা, উত্তর মালদা সাংগঠনিক জেলার সভাপতি উজ্জ্বল দত্ত সহ আরও অনেকে৷


সভামঞ্চ থেকে সজলবাবু বলেছিলেন, “রাবণের দেশ শ্রীলঙ্কায় মানুষ না খেতে পেয়ে বিদ্রোহ করেছে৷ গোটা দেশটাই ভিখিরি হয়ে গিয়েছে৷ মানুষ রাজপ্রাসাদ পর্যন্ত দখল করে নিয়েছে৷ রাবণের দেশে যদি এমন হতে পারে, তবে আপনারা চাইলে শূর্পণখার রাজত্বেও তা হতে পারে৷ পুলিশ কিছু করতে পারবে না৷”



সজলবাবুর মন্তব্যের প্রতিবাদে আজ রতুয়ায় একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলে পা মেলান জেলা তৃণমূলের সভাপতি আবদুর রহিম বকসি, রতুয়া ১ নম্বর ব্লক সভাপতি অজয়কুমার সিনহা সহ অন্যান্যরা। পরে সজলবাবুর কুশপুতুল দাহ করেন তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা। আজ দুপুরে সজল ঘোষের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন রতুয়া ১ নম্বর ব্লক তৃণমূল সভাপতি অজয়কুমার সিনহা। তিনি জানান, গতকাল কাহালায় বিজেপি নেতা সজল ঘোষ তৃণমূল ও প্রশাসনকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেছেন৷ দলীয় কর্মীদের হাতে অস্ত্র তুলে নিতে বলেছেন৷ মুখ্যমন্ত্রীকে শূর্পণখার সঙ্গে তুলনা করেছেন৷ মুখ্যমন্ত্রীর মানহানি করার প্রতিবাদে আজ তাঁর বিরুদ্ধে রতুয়া থানায় এফআইআর করা হয়েছে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page