top of page

ডেঙ্গি আক্রান্ত কিশোরের মৃত্যু, উত্তেজনা মালদা মেডিকেলে

ডেঙ্গিতে আক্রান্ত কিশোরের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। এই ঘটনায় মেডিকেল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ তুলেছেন পরিবারের লোকজন। যদিও এনিয়ে অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছে মেডিকেল কর্তৃপক্ষ।


মৃত কিশোরের নাম নাসিম আখতার (১৩)। বাড়ি কালিয়াচকের সুজাপুরের ভাগুটোলা এলাকায়। নাসিমের পরিবারের দাবি, মঙ্গলবার তাকে মালদা মেডিকেল কলেজে ভরতি করা হয়৷ কিছু সময় পরে একজন নার্স তাকে একটি ইনজেকশন দেয়। এরপরেই নাসিমের মৃত্যু হয়। কীভাবে নাসিমের মৃত্যু হল তা জানার জন্য ওই নার্সের খোঁজ করে পরিবারের লোকজন জানতে পারেন, ওই নার্স চলে গিয়েছেন। তারপরেও পরিবারের লোকজন ওই নার্সকে ডেকে দেওয়ার জন্য বলেন। এরপরে পুলিশ এসে ওই পরিবারকে ওয়ার্ড থেকে বের করে দেয়।


নাসিমের মা শাহনাজ খাতুনের অভিযোগ,

ছেলে বমি করছিল৷ বিষয়টি জানানোর পরে নার্স একটি ইনজেকশেন দেন৷ তারপরেই ছেলে মারা যায়৷ ভুল ইনজেকশনে ছেলের মৃত্যু হয়েছে বলে আমাদের ধারণা। ওই নার্সও ওয়ার্ড থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন৷


মেডিকেল সুপার পূরঞ্জয় সাহা জানান, ডেঙ্গি শক সিনড্রোমে ছেলেটির মৃত্যু হয়েছে৷ পরিবারের প্রথমে চিকিৎসা নিয়ে ভুল ধারণা হয়েছিল। তবে বিষয়টি বুঝতে পেরে তারা মৃতদেহ নিয়ে চলে গিয়েছেন। এনিয়ে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Commentaires


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page