top of page

বোনের প্রাপ্য অর্থ দাবি করে আক্রান্ত দাদা

বোনের প্রাপ্য টাকা ফেরত চাইতে মাসির কাছে গিয়েছিলেন দাদা। সেখানে গিয়ে মাসির পরিবারের লোকের হামলার শিকার হলেন দাদা। রতুয়া থানার বাহারাল গ্রামে গতকাল রাতে ঘটনাটি ঘটেছে। আহত দাদাকে প্রথমে রতুয়া গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সেখানকার চিকিৎসকদের পরামর্শে তাঁকে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গোটা ঘটনায় মেসো সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে রতুয়া থানায় গতকাল রাতেই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। যদিও পুলিশের পক্ষে এখনও অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।


পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আক্রান্ত ব্যক্তি বাহারাল গ্রামের বাসিন্দা সেকিয়া শেখ (৩৫)। সেকিয়ার অভিযোগ, তাঁর মাসি ফুলসারি বিবি, তাঁর বোন তাজেরা বিবির কাছ থেকে প্রায় ৮ মাস আগে প্রতি মাসে এক হাজার টাকা করে সুদের ভিত্তিতে ১০ হাজার টাকা ধার নিয়েছিল। কিন্তু মাসি সুদের টাকা দেওয়া তো দূরের কথা, আসল টাকাই ফেরত দিচ্ছিল না। সেকিয়া জানায় তাঁর বোন মাসির বাড়িতে গিয়ে একাধিকবার টাকা ফেরত চেয়ে তা পায়নি। সম্প্রতি তাঁর বোনের শ্বশুরবাড়ির এক সদস্য মারা যাওয়ায় তার টাকার প্রয়োজন। শুক্রবার বোন ফোন করে সেকিয়াকে মাসির বাড়ি গিয়ে টাকা নিয়ে আসতে বলে। সন্ধের সময় সেকিয়া মাসির বাড়ি টাকা চাইতে গেলে মেসো আজিমউদ্দিন শেখের সঙ্গে সেকিয়ার বচসা হয়। সেই সময় মেসো ও তাঁর দুই ছেলে রফিকুল ও সফিকুল সহ মোট ৬ জন শাবল, রড নিয়ে সেকিয়াকে বেধড়ক পেটায় বলে অভিযোগ করেছেন সেকিয়া।


সেকিয়ার বাড়ির লোকজন খবর পেয়ে গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে। রাতে রতুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। গোটা ঘটনায় অভিযুক্ত মেসো আজিমউদ্দিন শেখ সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে রতুয়া থানায় গতকাল রাতেই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। যদিও পুলিশের পক্ষে এখনও অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি বলে জানা গেছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

ভিডিয়োঃ কৃতাঙ্ক


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page