top of page

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সভাধিপতির দায়িত্ব পেলেন রফিকুল হোসেন

অবশেষে সভাধিপতি পেল মালদা জেলাপরিষদ। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আজ সভাধিপতি নির্বাচিত হয়েছেন সেচ ও কৃষি কর্মাধ্যক্ষ এটিএম রফিকুল হোসেন। রফিকুল সাহেবকে আজ সংবর্ধনা জানান রাজ্যের সেচ ও উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতরের প্রতিমন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন সহ জেলা তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বরা।



উল্লেখ্য, গত বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপিতে যোগদান করেন প্রাক্তন সভাধিপতি গৌরচন্দ্র মণ্ডল। গত ৬ জুলাই মালদা জেলাপরিষদের সভাধিপতি পদ থেকে ইস্তফা দেন গৌরবাবু। এতদিন অস্থায়ীভাবে সেই দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন সহকারী সভাধিপতি চন্দনা সরকার। গত ১৫ ফেব্রুয়ারি জেলা প্রশাসন জানায়, ২৩ ফেব্রুয়ারি মালদা জেলাপরিষদের সভাধিপতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, মালদা জেলাপরিষদের সভাধিপতি পদে তাঁদের দলের প্রার্থী এটিএম রফিকুল হোসেন।



৩৭ আসনের মালদা জেলাপরিষদে আজ উপস্থিত হয়েছিলেন ৩০ জন সদস্য। তবে বিরোধী শিবির বিজেপির পক্ষ থেকে জেলাপরিষদের সভাধিপতি নির্বাচনের জন্য কোনও প্রতিনিধি মনোনয়ন করা হয় নি। ফলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সভাধিপতির দায়িত্ব পান রফিকুল সাহেব। তিনি জানান, মালদা জেলার সার্বিক উন্নয়নের সমস্তরকম চেষ্টা করবেন তিনি। জেলাপরিষদের সব সদস্য ও আধিকারিকদের নিয়ে কাজ করতে চান তিনি। কিছুদিন আগে মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক বৈঠকে এই জেলার জন্য কিছু কাজের বিষয় উঠে এসেছিল। সেই কাজগুলিকেই তিনি প্রাধান্য দিতে চান।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page