top of page

রাখিবন্ধন উৎসবকে কেন্দ্র করে বিতর্ক মালদা শহরে

করোনা আবহে লকডাউন জারি রয়েছে জেলায়। লকডাউনের মধ্যেই সরকারি নির্দেশে আয়োজিত হল রাখিবন্ধন ও সংস্কৃতি দিবস উদযাপন। তবে হাতে রাখি পরানোর বদলে মাস্ক তুলে দেওয়া হল অনুষ্ঠান শেষে। তবে এদিনের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে একাধিক প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। লকডাউনে অনুষ্ঠান মঞ্চের সামনে জমায়েত করতে দেখা যায় বহু মানুষকে। মাস্ক বিলির সময়েও সামাজিক দূরত্ব বিধি পালন করা হয়নি। যেখানে সরকারি অনুষ্ঠানে আধিকারিকদের সামনে এই ঘটনা ঘটেছে সেখানে সরকার সাধারণ মানুষের কাছে কি প্রত্যাশা রাখছে।


people-were-seen-gathering-in-front-of-the-rakhibandhan-stage

আজ সকালে মালদা শহরের ফোয়ারা মোড়ে রাখিবন্ধন ও সংস্কৃতি দিবস উদযাপনের আয়োজন করে জেলা যুবকল্যাণ ও ক্রীড়া দফতর। রাস্তার ওপরেই অনুষ্ঠান মঞ্চ তৈরি করা হয়। এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক রাজর্ষি মিত্র, পুলিশসুপার অলোক রাজোরিয়া, অতিরিক্ত জেলাশাসক অর্ণব চট্টোপাধ্যায়, বিকাশ সাহা, মহকুমাশাসক সুরেশচন্দ্র রানো, ইংরেজবাজার পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের সদস্যদের পাশাপাশি রাজ্যসভার সাংসদ মৌসম নূরও। জেলার শীর্ষ আধিকারিকদের উপস্থিতিতেই অনুষ্ঠান মঞ্চের সামনে জমায়েত হয়। অনুষ্ঠান শেষে মাস্ক বিলির সময়ে গা ঘেঁষে ঘেঁষে মাস্ক বিলি ও সংগ্রহ করার ঘটনাও সামনে উঠে আসে।




টপিকঃ #রাখিবন্ধন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page