top of page

মাল্টি সিস্টেম ইনফ্লেমেটরি সিনড্রোম, নতুন রোগে মেডিকেল কলেজে ভরতি ২০ শিশু

এখন দেশে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। এরমধ্যেই আশঙ্কা তৈরি হয়েছে তৃতীয় ঢেউ নিয়ে। তবে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের থেকেও মাল্টি সিস্টেম ইনফ্লেমেটরি সিনড্রোম নিয়ে এই মুহূর্তে চিন্তিত মালদা মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকরা।


মালদা মেডিকেল কলেজের শিশু বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক সুষমা সাহু জানালেন, বর্তমানে এই নতুন রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রায় ২০টি শিশু মেডিকেল কলেজে ভরতি রয়েছে। বাবা-মা কিংবা বাড়ির লোকজন করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সময় অনেক বাচ্চা তাঁদের কাছাকাছি এসেছিল। কিন্তু বাচ্চাদের মধ্যে সেই সময় করোনার উপসর্গ দেখা যায়নি। উপসর্গ না থাকায় তাদের করোনা পরীক্ষাও হয়নি। এখন সেই বাচ্চাদের অনেকের মধ্যে জ্বর, চোখ-ঠোঁট ও জিভ লাল হওয়া, গায়ে রাশ বেরোনো, কাশি, শ্বাসকষ্টের মতো বেশ কিছু উপসর্গ দেখা যাচ্ছে। এই বিশেষ ধরণের উপসর্গ চিকিৎসার পরিভাষায় মাল্টি সিস্টেম ইনফ্লেমেটরি সিনড্রোম।



তিনি আরও জানান, মালদা মেডিকেল কলেজে এমন উপসর্গ নিয়ে প্রায় ২০টি বাচ্চা ভরতি রয়েছে। এদের অনেকেই খেতে পারছে না, ঢোঁক গিলতে কষ্ট হচ্ছে, মায়ের বুকের দুধ টানতে পারছে না। অনেকের আবার পেটে ব্যথা, বমি কিংবা পাতলা পায়খানাও হচ্ছে। বেশ কিছু বাচ্চার মধ্যে স্নায়ু ঘটিত সমস্যাও দেখা যাচ্ছে। সঠিক সময়ে এই উপসর্গ থাকা বাচ্চাদের রোগ নির্ণয় করা হলে চিকিৎসার মাধ্যমে তাদের সুস্থ করা যাবে। তবে তাদের সঠিক সময়ে হাসপাতালে নিয়ে আসতে হবে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page