top of page

চাকরি হারানোর আশঙ্কায় কর্মবিরতি মেডিকেলের অস্থায়ী কর্মীদের

চাকরিতে বহাল রাখার দাবিতে কর্মবিরতিতে সামিল হয়ে অবস্থান বিক্ষোভে সামিল হলেন মালদা মেডিকেল কলেজের অস্থায়ী কর্মীরা। মেডিকেল কর্তৃপক্ষের দাবি, স্বাস্থ্যভবনে পুরো বিষয়টি জানিয়ে ই-ফাইল পাঠানো হয়েছে। স্বাস্থ্য ভবনের নির্দেশিকা অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।


মেডিকেল কলেজে এক অস্থায়ী কর্মীদের দাবি, তাঁরা মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে দীর্ঘদিন ধরে পরিসেবা দিচ্ছেন। ১৭৭ জন অস্থায়ী কর্মীদের মধ্যে কেউ ২০ বছর কেউ আরও বেশি সময় ধরে কাজ করছেন। গতকাল একটি নোটিশ জারি করে বলা হয়েছে, ১ অগাস্ট থেকে চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের দিয়ে আর কাজ করানো যাবে না। যে ফাণ্ড থেকে অস্থায়ী কর্মীদের বেতন দেওয়া হত সেই ফান্ডে টাকা না থাকার কারণে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে দাবি কর্তৃপক্ষের। মালদা মেডিকেল কলেজের অস্থায়ী কর্মীরা করোনা আবহে কোভিড ওয়ার্ড, এমারজেন্সি সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডে কাজ করেছে। অথচ এখন হঠাৎ তাঁদের ছাড়িয়ে দেওয়ার নোটিশ দেওয়া হয়েছে। এরই প্রতিবাদে তাঁদের কর্মবিরতি ও অবস্থান বিক্ষোভ।





এমএসভিপি পুরঞ্জয় সাহা জানান, মেডিকেল কলেজে দৈনিক মজুরিতে নিযুক্ত ১৪৬ জন অস্থায়ী কর্মী রয়েছেন। এতদিন ধরে রোগী কল্যাণ সমিতির তহবিল থেকে তাঁদের বেতন হত। সেই ফান্ড এখন আর নেই। তাই কর্মীদের নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তবে এই কর্মীদের স্থায়ীকরণের জন্য স্বাস্থ্য ভবনে ই-ফাইল পাঠানো হয়েছে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comentários


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page