top of page

বধূকে নৃশংস অত্যাচারের অভিযোগে শ্বশুরকে গণধোলাই

গৃহবধূর ওপর অমানবিক অত্যাচার। দড়ি দিয়ে হাত বেঁধে, মুখে গামছা গুঁজে গৃহবধূকে মারধরের অভিযোগ শ্বশুর-শাশুড়ির বিরুদ্ধে। গৃহবধূ কোনোরকমে পালিয়ে স্থানীয়দের বিষয়টি জানালে স্থানীয় বাসিন্দা অভিযুক্ত শ্বশুরকে গণধোলাই দেয়। খবর পেয়ে ওই বধূকে উদ্ধার করে শ্বশুর-শাশুড়িকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে গাজোল থানার রাঙাভিটা এলাকায়।


নির্যাতিতা গৃহবধূ মালদার নালাগোলার বাসিন্দা। জানা গিয়েছে, সাত বছর আগে গাজোল থানার রাঙাভিটা এলাকার এক যুবকের সাথে বিয়ে হয় তাঁর। বিয়ের পর থেকে ওই গৃহবধূর স্বামী ভিনরাজ্যের একটি কোম্পানিতে কর্মরত রয়েছেন। অভিযোগ, একা পেয়ে ওই গৃহবধূর ওপর অত্যাচার চালাত তার শ্বশুর-শাশুড়ি। গতকাল দড়ি দিয়ে হাত বেঁধে, মুখে গামছা গুঁজে গৃহবধূকে সারারাত ধরে মারধর করে শ্বশুর-শাশুড়ি। সকালে কোনোরকমে গ্রামে পালিয়ে স্থানীয়দের বিষয়টি জানান তিনি। এরপরই ক্ষিপ্ত এলাকাবাসীরা গণধোলাই দেয় অভিযুক্ত শ্বশুরকে। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে তড়িঘড়ি ছুটে এসে ক্ষিপ্ত জনতার হাত থেকে অভিযুক্ত শ্বশুরকে উদ্ধার করে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। আটক করা হয়েছে অভিযুক্ত শাশুড়িকেও। নির্যাতিতা গৃহবধূকে চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়।





আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page