top of page

ইংরেজবাজারে করোনার থাবা, জেলায় আক্রান্ত এখন ২৬

শুক্রবার ইংরেজবাজারে প্রথম করোনা আক্রান্তের সন্ধান মিলল। মালদা মেডিকেল কলেজের লালারসের নমুনা পরীক্ষায় আজ সাতজনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এই নিয়ে এখনও পর্যন্ত জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২৬৷ আক্রান্ত এই সাত পরিযায়ী শ্রমিককে তড়িঘড়ি পুরাতন মালদার করোনা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।



লকডাউন ঘোষণার বেশ কিছুদিন পর গত ২৭ এপ্রিল প্রথম মালদায় করোনাভাইরাস থাবা বসায়। আক্রান্ত হয়েছিলেন মানিকচকের চৌকি মিরদাদপুরের নতুনটোলা এলাকার এক বাসিন্দা। এরপর দু’দিন পর রতুয়া ১ ব্লকের বাহারাল এলাকায় দ্বিতীয় এক ব্যক্তির শরীরে সংক্রমণ দেখা যায়। এরপর রতুয়া, হরিশ্চন্দ্রপুর, পুরাতন মালদায়ও করোনা আক্রান্তের হদিশ পাওয়া যায়৷ গতকাল ভিনরাজ্য থেকে বেশ বেশ কিছু শ্রমিক জেলায় ফিরে আসেন৷ গতকালই তাদের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়৷ আজ ওই লালারসের করোনা পরীক্ষা করা হয়৷ আপাতত সাতজনের লালারসের নমুনায় করোনার সন্ধান মিলেছে বলে জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গেছে৷

মালদা মেডিকেল কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, কালিয়াচক ১ ব্লকের ৩ জন, হরিশ্চন্দ্রপুর ২ ব্লক, মানিকচক, পুরাতন মালদা ও ইংরেজবাজারের ১ জন করে ভিন রাজ্য ফেরত শ্রমিকের লালারসের নমুনায় করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে৷ এখনও পর্যন্ত জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৬৷ নতুন করে সাত করোনা আক্রান্তকে পুরাতন মালদার করোনা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে৷

মালদা জেলায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ হরিশ্চন্দ্রপুরে। শুক্রবারের রিপোর্টের পর সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১২। তবে গতকাল মালদা মেডিকেল কলেজ সূত্রে জানা গেছে হরিশ্চন্দ্রপুরের আগের করোনা আক্রান্ত ১১ জনের প্রত্যেকেই এখন সুস্থ আছেন।



বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page