top of page

পণের বলি! হরিশ্চন্দ্রপুরে গৃহবধূ হত্যার অভিযোগ

পণের দাবিতে গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামী সহ শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় আপাতত তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রাতে ঘটনাটি ঘটেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার গোবরামিস্ত্রিপাড়া এলাকায়।


মৃত গৃহবধূর নাম সোনা মণ্ডল (২৫)। বাড়ি রতুয়া থানার সূর্যপুর গাবুয়া এলাকায়। পরিবারসূত্রে জানা গেছে, প্রায় পাঁচ বছর আগে স্থানীয় গোবরামিস্ত্রিপাড়া এলাকার সুবীর মণ্ডলের সঙ্গে বিয়ে হয় সোনার। অভিযোগ, বিয়ের কয়েকদিন পর থেকেই বাবার বাড়ি থেকে টাকা আনার জন্য সোনাকে চাপ দিতে থাকে স্বামী সহ পরিবারের লোকেরা। চলতে থাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনও। আজ সোনার মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃতদেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠায় পুলিশ। এই ঘটনায় পাঁচজনের নামে হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মৃত গৃহবধূর বাড়ির লোকজন।


মৃত সোনা মণ্ডলের পরিবারের অভিযোগ, বিয়ের পর থেকে পণের দাবিতে সোনার ওপর নির্মম অত্যাচার চালাত শ্বশুরবাড়ির লোকজন। তাদের দাবিমতো‌‌ কিছু নগদ টাকা সহ ফ্রিজ, খাট, শোকেস, আলমারি ইত্যাদি দেওয়া হয় ছেলেপক্ষকে।

গতকাল রাতে ফের বাড়ি থেকে টাকা আনার জন্য সোনার ওপর অত্যাচার চালায় তাঁর শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। পরে সোনাকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয় বলে অভিযোগ জানিয়েছেন মৃত বধূর পরিবারের সদস্যরা

মৃতার স্বামী সুবীর মণ্ডল জানান, আজ সে স্কুলে চাল ও আলু বিলি করার জন্য গিয়েছিল। স্ত্রীর মৃত্যুর খবর পেয়ে সে বাড়ি ফিরে আসে। বাড়িতে ফিরে দেখে তার স্ত্রীর মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। কেন তার স্ত্রী আত্মহত্যা করল সে তা জানে না।




মালদা জেলার খবর ও বিনোদনের লেটেস্ট ভিডিয়ো আপডেট পেতে ক্লিক করুন


টপিকঃ #বধূহত্যা #Dowry #DomesticViolence

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page