top of page

মদের খোঁজে স্বামী, ঘরেই উদ্ধার স্ত্রীর ঝুলন্ত দেহ

গৃহবধূর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল পুরাতন মালদায়। মৃতদেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মালদা থানার পুলিশ। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পুরাতন মালদার মঙ্গলবাড়ি গ্রামপঞ্চায়েতের বেহুলা কলোনি এলাকায়।



মৃত গৃহবধূর নাম আরতি কর্মকার (২১)। বাড়ি উত্তর দিনাজপুরে। পরিবারসূত্রে জানা গেছে, চার বছর আগে পুরাতন মালদার বেহুলা কলোনির সুজিত কর্মকারের সঙ্গে বিয়ে হয় আরতির। একটি কন্যাসন্তান রয়েছে তাদের। বিয়ের পরেই কর্মসূত্রে স্ত্রীকে নিয়ে দিল্লি চলে যায় সুজিত। পাঁচ মাসে আগে তারা গ্রামের বাড়িতে ফিরে আসে। অভিযোগ, সুজিতের মদ্যপানের নেশা ছিল। লকডাউনে সমস্ত মদের দোকান বন্ধ হয়ে যায়। মদ না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রীকে মারধর করত সুজিত। মদ্যপান নিয়ে পরিবারের মধ্যে প্রায়শই ঝামেলা লেগে থাকত। গতকাল বিকেলে মদের সন্ধানে বাড়ি থেকে বেড়িয়েছিল সুজিত। সেই সময় ঘরের মধ্যে ঝুলন্ত অবস্থায় আরতির মৃতদেহ দেখতে পায় পরিবারের লোকজন।






খবর দেওয়া হয় পুলিশে। ঘটনাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠায় মালদা থানার পুলিশ। আপাতত একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মালদা থানার পুলিশ। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান, সম্ভবত পারিবারিক বিবাদের জেরে আত্মঘাতী হয়েছে ওই গৃহবধূ৷


মালদা জেলার খবর ও বিনোদনের লেটেস্ট ভিডিয়ো আপডেট পেতে ক্লিক করুন


টপিকঃ #Lockdown #Suicide

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page