top of page

কৃষকদের বঞ্চিত করা হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে, অভিযোগ বিজেপি’র রাজ্য সহ সভাপতির

সাংবাদিক বৈঠক ডেকে বিভিন্ন ইশ্যুতে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করলেন বিজেপির রাজ্য সহ সভাপতি বিশ্বপ্রিয় রায়চৌধুরি। পাশাপাশি বিজেপি রাজ্যে ক্ষমতায় এলে কী কী হতে চলেছে রাজ্যে সেসব তুলে ধরেন তিনি। এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন উত্তর মালদার সাংসদ খগেন মুর্মু, বিজেপির জেলা সভাপতি গোবিন্দচন্দ্র মণ্ডল সহ অন্যান্য কর্মী সমর্থকরা।



বিশ্বপ্রিয়বাবু বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের জন্য ছয় হাজার টাকা এবং লকডাউনে আরও তিন হাজার টাকা দিচ্ছে৷ কিন্তু এই রাজ্যের কৃষক সেই সুবিধে পাচ্ছে না৷ কেন্দ্রীয় সরকার যেভাবে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য পোর্টাল তৈরি করেছে, তেমনই কৃষকদেরও পোর্টাল তৈরি করার চেষ্টা চলছে৷ মমতা ব্যানার্জি বাংলায় আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পও চালু করেননি৷ নরেন্দ্র মোদী দেশের ক্ষমতায় আসার পর বাংলার জন্য চার লক্ষ ৪৮ হাজার ২১৪ কোটি টাকা দিয়েছিলেন৷ সেই টাকা লুট চলছে৷ জনধন যোজনায় বিপিএল তালিকাভুক্ত মায়েদের প্রত্যেকের অ্যাকাউন্টে ৫০০ টাকা করে ঢুকলেও দিদির ভাইরা সেখান থেকে ২০০ টাকা করে কাটমানি নিচ্ছে৷ পাকা শৌচাগার নির্মাণেও কাটমানি নেওয়া হয়েছে। করোনা মোকাবিলায় লকডাউন ঘোষণার পর কেন্দ্রীয় সরকার প্রত্যেক রেশনকার্ড হোল্ডারকে পাঁচ কেজি করে চাল ও পরিবার পিছু এক কিলো করে ডাল দেওয়ার কথা ঘোষণা করে৷ কিন্তু এখনও কাউকে ডাল দেওয়া হয়নি৷ লকডাউনে শ্রমিকদের অন্য রাজ্যগুলি নিজেদের ঘরে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করছে, তখন দিদি বলছেন, ওই ট্রেনগুলি নাকি করোনা এক্সপ্রেস৷ আগামী বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যের মানুষ এসবের বিচার করবে।





Kommentare


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page