top of page

ফের রমরমা ভেজাল হলুদের, প্রশ্ন উঠছে হরিশ্চন্দ্রপুরে

পুজোর আগে ভেজাল হলুদ বিকচ্ছে রমরমিয়ে। একাধিকবার খাদ্য সুরক্ষা দফতরের হানার পরেও ফের কীভাবে কারখানা খুলে যাচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। প্রশাসনের নজর এড়িয়ে কীভাবে কারখানা চলছে এনিয়েও প্রশ্ন তুলছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য হরিশ্চন্দ্রপুরে।


হরিশ্চন্দ্রপুর জুড়ে এরকম বেশ কিছু ভেজাল হলুদ তৈরির কারখানা গজিয়ে উঠেছে বলে অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। এমনই একটি কারখানা রয়েছে রামপুর এলাকা৷ স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, বছর দশেক ধরে গ্রামে ভেজাল হলুদ তৈরির কারখানা চলছে। প্রশাসন হানা দিয়ে একবার কারখানাটি বন্ধ করেছিল। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই ফের সেই কারখানা খুলে যায়। এখন ফের ভেজাল হলুদের কারবার চলছে। এর পেছনে রাজনৈতিক কোনও মদত রয়েছে কিনা জানা নেই।


Factories for adulterated turmeric flourished
গ্রামে ভেজাল হলুদ তৈরির কারখানা চলছে

রাসায়নিক রং ব্যবহারে চিন্তা গ্রামীণ হাসপাতালের চিকিৎসকদের মধ্যে। তাঁদের দাবি, এনিয়ে কোনও অভিযোগ হয়েছে কিনা জানা নেই। তবে ভেজাল হলুদ তৈরির কারখানার কথা লোকমুখে তাঁরা শুনেছেন। রাসায়নিক ও রং ব্যবহার করে হলুদ তৈরি হলে পেটের নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। হতে পারে ক্যান্সারের মতো রোগও।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page