top of page

মাদক সেবনের প্রতিবাদ করায় আক্রান্ত মোড়ল

গ্রামের মোড়ল তিনি। তাই অসামাজিক কাজকর্মের প্রতিবাদ করেছিলেন। উল্টে আক্রান্ত হলেন তিনি। কালিয়াচক থানার সিলামপুর গ্রামে গতকাল রাতে ঘটনাটি ঘটেছে। বর্তমানে তিনি মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। তবে চিকিৎসাধীন মোড়ল এখনও পর্যন্ত পুলিশের কাছে কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের করেননি।



কালিয়াচকের সিলামপুর গ্রামনিবাসী পেশায় ফল ব্যবসায়ী আক্রান্ত মোড়লের নাম রবিউল মণ্ডল। বয়স ৪২ বছর। সিলামপুর এলাকার মানুষজন মোড়ল হিসাবে তাঁকে সবাই মান্য করে চলে। নিজের বাড়ির পিছনদিকেই গতকাল রাতে আক্রান্ত হন তিনি। তাঁর শ্যালক রবিউল ইসলাম বলেন, তাঁর জামাইবাবুর বাড়ির পিছনদিকের একটি বাগানে প্রতি রাতে এলাকার যুবকরা মদ্যপান সহ গাঁজা, চরসের নেশা করে। মাদকের তীব্র গন্ধে বাড়ির লোকদের সমস্যা হয়। বৃহস্পতিবার রাতে যুবকরা যখন সেই বাগানে বসে গাঁজা খাচ্ছিল তখন রবিউল মণ্ডল যুবকদের সাফ জানিয়ে দেন, সেখানে কোনও নেশা করা যাবে না। প্রতিবাদ করতেই নেশাগ্রস্ত যুবকরা হাঁসুয়া ও গাছের ডাল নিয়ে তাঁর উপর চড়াও হয়ে তাঁকে বেধড়ক মারধর করে। তাঁরা চিৎকার শুনে পরিবারের অন্যান্য সদস্য ও গ্রামবাসীরা সেই বাগানে ছুটে যায়। সেই সময় দুই যুবক গ্রামবাসীদের হাতে ধরা পড়ে যায় । ইতিমধ্যে খবর পেয়ে কালিয়াচক থানার পুলিশও ঘটনাস্থলে চলে আসে । ওই দুই যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। রবিউল মণ্ডলকে প্রথমে স্থানীয় সিলামপুর গ্রামীণ হাসপাতালে ও পরবর্তীতে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসাধীন তিনি। ফলে পুলিশের কাছে এখনও পর্যন্ত কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে পারেননি তিনি। তবে কালিয়াচক থানার পুলিশ জানিয়েছে, এই হামলার ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুই যুবককে আটক করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ দায়ের হলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে কালিয়াচক থানার তরফে জানানো হয়েছে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comentarios


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page