top of page

জেলায় প্রথম প্লাজমা দান করোনা জয়ীদের

করোনা দমন করতে জেলায় প্রথম রক্তের প্লাজমা দান শিবির অনুষ্ঠিত হল আড়াইডাঙা গ্রামীণ হাসপাতালে। আজ ১০ জন কোভিড জয়ী প্লাজমা দান করেন। দাতাদের উৎসাহ দিতে এদিনের শিবিরে উপস্থিত ছিলেন মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের (ব্লাড ব্যাঙ্ক) চিকিৎসক সুশান্ত ব্যানার্জি, পুখুরিয়া থানার ওসি ঝোটন প্রসাদ, আড়াইডাঙ্গা হাসপাতালের ডাক্তার রাজীব কুমার সহ অনেকে।


District first plasma donation camp held at Araidanga

করোনা মোকাবিলায় প্লাজমা থেরাপি নিয়ে পরীক্ষা চলছে। অল ইন্ডিয়া ইন্সটিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সও এই প্লাজমা থেরাপি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছোয়নি। তবে রাজ্য সরকার পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি মেডিকেল কলেজে এই চিকিৎসা পদ্ধতি চালু করতে চলেছে। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর থেকে সেই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। চিকিৎসকদের একাংশের দাবি, শুধুমাত্র মৃদু সমস্যা যুক্ত কোভিড রোগীদেরই এই পদ্ধতিতে চিকিৎসা করা সম্ভব।




আজ রতুয়ার আড়াইডাঙা গ্রামীণ হাসপাতালে জেলার প্রথম রক্তের প্লাজমা দান শিবিরের আয়োজন হয়। জেলায় ১০ কোভিড জয়ী এদিন প্লাজমা দান করেন। করোনা সংক্রমিতদের চিকিৎসায় এই প্লাজমা ব্যবহার করা হবে। কোভিড জয়ীদের এই পদক্ষেপ সাধারণ মানুষকে প্লাজমা দান করতে এগিয়ে নিয়ে আসবে বলে মনে করছেন চিকিৎসকদের একাংশ।

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page