top of page

বিধিনিষেধ উড়িয়ে কলেজে জমায়েত করে প্রতিষ্ঠা দিবস পালন টিএমসিপির

করোনা আবহে বন্ধ রাখা হয়েছে স্কুল কলেজ। কলেজ বন্ধ থাকলেও কলেজের হলঘরে পালিত হল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস। জমায়েত করে মাস্ক ছাড়াই কর্মসূচিতে অংশ নিতে দেখা গেল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কর্মীদের। এমনই ছবি ধরা পড়ল চাঁচল কলেজে। বিষয়টি নিয়ে কটাক্ষ বিরোধীদের।


শনিবার রাজ্য জুড়ে পালিত হয়েছে টিএমসিপির ২৩তম প্রতিষ্ঠা দিবস। চাঁচল-১ নং ব্লকের টিএমসিপির উদ্যোগেও চাঁচল কলেজে ২৩ তম প্রতিষ্ঠা দিবস পালিত হল। এদিন চাঁচল কলেজের ভেতরে টিএমসিপির দলীয় পতাকা উত্তোলন করে কর্মসূচির সূচনা হয়। তৃণমূলের ব্যানারে ঢেকে দেওয়া হয় কলেজের মূল গেট। সেখান থেকেই ভার্চুয়ালি তৃণমূল সুপ্রিমোর বক্তব্য শোনেন কর্মীরা। উপস্থিত ছিলেন মালদা জেলা তৃণমূলের সভাপতি আব্দুর রহিম বক্সি, চাঁচল ১ নং ব্লক তৃণমূল কমিটির সভাপতি সচ্চিদানন্দ চক্রবর্তী, মালদা জেলাপরিষদের কৃষি কর্মাধ্যক্ষ রফিকুল হোসেন সহ অন্যান্যরা।


চাঁচলের এসএফআই সংগঠনের সদস্য ঋজু দাস বলেন, চাঁচল কলেজ এখন আর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না। সেটি এখন টিএমসিপির দলীয় কার্যালয়ে পরিণত হয়েছে। কলেজ কর্তৃপক্ষ কীভাবে এধরনের রাজনৈতিক অনুষ্ঠানের অনুমতি দিল সেটাই জানার বিষয়।



মালদা জেলা যুব মোর্চার সহ সভাপতি সুমিত সরকার জানান, সকাল থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভে দেখছি চাঁচল কলেজ ক্যাম্পাসে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠান দিবস পালিত হচ্ছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই ধরনের রাজনৈতিক কর্মসূচি কার নির্দেশে হচ্ছে?



মালদা জেলা তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বাবু সরকার জানান, কলেজ কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে কলেজ হলঘরে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। তবে ঘটনা প্রসঙ্গে কলেজ কর্তৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comentários


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page