বিজ্ঞাপন

কুমির আতঙ্ক বৈরগাছিতে, বনদপ্তর জানাল ঘড়িয়াল

সোমবার সকালে মহানন্দা নদীতে কুমির প্রজাতির একটি প্রাণী দেখতে পেয়ে হুলস্থুল বাঁধিয়ে ফেলে গ্রামবাসীরা। মোবাইলে ছবি সেই তুলতে উৎসুক জনতার ভিড় জমে যায় নদীর ধারে। সেই সময় নদীতে যারা স্নান করছিলেন তড়িঘড়ি উঠে আসেন ডাঙায়। ঘটনাটি ঘটেছে গাজোলের বৈরগাছি-১ গ্রামপঞ্চায়েতের কুতুবপুর এলাকায়। পরে বেলা গড়ালে বন দফতরের কর্মীরা খোলসা করেন ব্যাপারটি। তাঁরা জানান, গ্রামবাসীরা ঘড়িয়াল দেখে কুমির ভেবে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন।



স্থানীয়দের একাংশের মতে, আজ সকাল দশটা নাগাদ কুতুবপুর এলাকায় মহানন্দা নদীতে একটি কুমির দেখা যায়। অনেকেই তা ফোনে ভিডিয়ো রেকর্ড করেন। সেই খবর ছড়িয়ে পড়তেই এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। এলাকাবাসীরা নদীর তীর থেকে গবাদি পশুদের সরিয়ে নিয়ে চলে যান। যারা নদীতে স্নান করছিলেন সকলেই নদী থেকে উঠে আসেন। রাজাপুরের এক বাসিন্দা জানান, প্রায় বছর দুয়েক আগে একসঙ্গে আট-নয়টি কুমির এসেছিল। তবে এবার একটাই দেখা গেছে। মনে হয় বড়ো কোনও নদী থেকে এটি এসেছে।


ভিডিয়োতে দেখুন


[ আরও খবরঃ অবলীলায় দোকানে খাবার বেচলেন বিক্রেতা, দুপুরে জানা গেল করোনায় আক্রান্ত ]


বন দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিষয়টি দফতরের নজরে এসেছে। তবে কুমির নয়, এটি ঘড়িয়াল। ঘড়িয়ালকে নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। এটি বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতির প্রাণী। মূলত গঙ্গা নদীতে দেখা যায় ঘড়িয়াল। গঙ্গা থেকে হয়তো কোনোভাবে মহানন্দা নদীতে চলে এসেছে। কয়েক বছর আগেও একবার মহানন্দা নদীতে ঘড়িয়ালের দেখা মিলেছিল। এবিষয়ে জনগণকে সচেতন করার জন্য বৈরগাছি হাটে বন দফতরের পক্ষ থেকে প্রচার চালানো হবে।



টপিকঃ #Mahananda । উপরের ছবিটি প্রতীকী

890 views

বিজ্ঞাপন

MGH.jpg
পপুলার
1

চাল পাচার করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল পুরকর্মী

চাল পাচার করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল পুরকর্মী
2

তিন দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত দশ, শহরে খোলা শপিংমল

তিন দিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত দশ, শহরে খোলা শপিংমল
3

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত মালদার নেতাজি কলোনি, মোতায়েন পুলিশ

ভোট পরবর্তী হিংসায় উত্তপ্ত মালদার নেতাজি কলোনি, মোতায়েন পুলিশ
4

চকলেটের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ব্যক্তি

চকলেটের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেফতার ব্যক্তি
5

পরীক্ষায় প্রতিদিন প্রায় ৫০ শতাংশ পজিটিভ, বেড বাড়ানো হচ্ছে মেডিকেলে

পরীক্ষায় প্রতিদিন প্রায় ৫০ শতাংশ পজিটিভ, বেড বাড়ানো হচ্ছে মেডিকেলে
Earnbounty_300_250_0208.jpg
টাটকা আপডেট