top of page

মমতার সভায় বিতর্ক, মালদায় সাংবাদিক সম্মেলনে মতুয়া সম্প্রদায়

মালদায় সরকারি প্রকল্পের সুবিধে বিলি অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্যে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। সেই বিতর্ক নিয়ে রাজ্য জুড়ে ক্ষোভে ফুঁসছেন মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষ। এবারে এনিয়ে সরব হলেন মালদার মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষ। আজ দুপুরে এনিয়ে মালদা প্রেস কর্নারে সাংবাদিক বৈঠক করেন মালদার মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষরা।


মতুয়া মহাসংঘের সহ সভাপতি তথা মতুয়া ওয়েলফেয়ার বোর্ডের সদস্য দ্বিজেন অধিকারী জানান, গত ৩১ জানুয়ারি গাজোলের সভায় মতুয়া ধর্মের আরাধ্য দেবতার নাম মুখ্যমন্ত্রী মুখ ফসকে ভুল বেড়িয়ে যায়। সেই সময় তিনি রঞ্জিত সরকার নামে এক ব্যক্তিকে সেই নাম সংশোধন করার কথাও বলেছিলেন। কিন্তু রঞ্জিতবাবু তা সংশোধন করেননি। পরে মুখ্যমন্ত্রীর হাতে হরিচাঁদ ঠাকুর ও শান্তিমাতার ছবি তুলে দেওয়ার সময়ও তিনি নাম সংশোধন করে দেননি। এই ঘটনা মতুয়াদের ভাবাবেগকে আঘাত করেছে। মালদা জেলা মতুয়া মহাসংঘ মনে করে, রঞ্জিত সরকার মুখ্যমন্ত্রীকেও এই ঘটনায় হেনস্তা এবং অপমানিত করেছেন৷ রঞ্জিত সরকার একজন স্বঘোষিত মতুয়া নেতা৷ তিনি নিজের সাইনবোর্ডে অনেক কিছু লেখেন৷ কিন্তু আদপে তিনি কোন পদে রয়েছেন, তা তাঁরা জানেন না৷ অথচ রঞ্জিত সরকার মতুয়াদের কেউ নয়৷ আমাদের সংঘাধিপতি মা মমতাবালা ঠাকুর কিছুদিন আগে গাজোলের সভায় এসে তা সাফ জানিয়েছেন।



দ্বিজেনবাবু আরও জানান, মুখ্যমন্ত্রীর উপর তাঁদের আস্থা রয়েছে৷ মতুয়াদের জন্য মুখ্যমন্ত্রী অনেক কিছু করেছেন৷ উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে তিনি যদি কোনও সদর্থক ভূমিকা নেন, তবে মতুয়া সম্প্রদায় মুখ্যমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞ থাকবে৷




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page