top of page

আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জলাশয় ভরাটের অভিযোগ

কোর্টের নির্দেশ অমান্য করে পিডব্লিউডি'র জলাশয় দখল করে ভরাটের অভিযোগ উঠেছে হরিশ্চন্দ্রপুর ১ ব্লকের তুলসীহাটা গ্রামপঞ্চায়েতে।


স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কুশিদাগামী রাজ্যসড়কের পশ্চিমধারে গত ৭০ বছর ধরে পিডব্লিউডি'র ১৭ শতক খাস জমি রয়েছে। এরমধ্যে ১০ শতক জমির ওপর বাস করছে তফিজুল শেখ ও তাঁর পরিবার। অবশিষ্ট সাত শতক জলাশয়ও তাঁদের দখলেই ছিল। কিছুদিন আগে মালেকা ও তার ছেলেরা এই জমি তাদের নিজেদের দাবি করে দখলের চেষ্টা করতে থাকে। ঝামেলার সূত্রপাত এখানেই। এরপর মামলাটি চাঁচল আদালতে যায়। আদালত দখল বন্ধের নির্দেশ জারি করে। অভিযোগ, এরপরে মালেকা ও তার ছেলেরা নকল দলিল তৈরি করে এলাকার বাসিন্দা মঞ্জুরি বিবির কাছে বিক্রি করে দেয়।



তফিজুল শেখ জানান, এই সরকারি খাস জমিতে আমি গত ৭০ বছর ধরে বাস করছি। সরকারিভাবে পরে আমাকে এখানে থাকার পাকা ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়। এদিকে মালেকা ও ছেলেরা মিলে জাল দলিল বানিয়ে জমি দখল করে একজনের কাছে বিক্রিও করে। পুলিশে অভিযোগ জানিয়ে কোনো সুরাহা হয়নি। তাই আমরা কোর্টে যাই। কোর্ট সব শুনে মাটি ভরাট বন্ধ করার নোটিশ দেন। কিন্তু তারা আইন না মেনে অবৈধভাবে মাটি ভরাট করে যায়। এই দখল কাণ্ডে অভিযুক্ত আবদুল খালেক তাদের নিজস্ব রায়তি জমিই বিক্রি করেছে দাবী করে বলেন, "এই জায়গায় পিডব্লিউডি'র কোনো খাস জমি বলতে কিছু নেই। আমাদের জমির আসল দলিল রয়েছে। এই জমি আমার মায়ের নামে।"

তুলসীহাটা গ্রামপঞ্চায়েতের প্রধান শকুন্তলা সিংহ জানান, এই জমি দখলের অভিযোগটি সম্পর্কে তিনি অবগত রয়েছেন। ঘটনাটি দ্রুত খতিয়ে দেখে সমাধানের জন্য চেষ্টা করা হবে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comentarios


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page