top of page

মুখ্যমন্ত্রীর সভায় যাওয়ার পথে দুর্ঘটনা, মৃতের পরিবারের হাতে সরকারি চেক

গতকাল রাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভাস্থলের কাছেই নয়ানজুলিতে উলটে যায় উপভোক্তাবোঝাই সরকারি বাস৷ দুর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন৷ আহতদের মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে৷ রাতেই আহতদের সঙ্গে দেখা করতে মেডিকেল কলেজে ছুটে যান রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরি, বিধায়ক নীহাররঞ্জন ঘোষ, এডিজি (উত্তরবঙ্গ) অজয় কুমার সহ আরও অনেকে৷ আজ দুপুরে সভামঞ্চ থেকে দুর্ঘটনায় দুই মহিলার মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ দুই পরিবারের একজন করে সদস্যকে সরকারি চাকরি ও দুই লক্ষ টাকা করে টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা করেন তিনি৷


আজ গাজোল কলেজ ময়দানে মালদা ও দুই দিনাজপুর জেলা নিয়ে প্রশাসনিক সভা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ সভামঞ্চ থেকে উপভোক্তাদের হাতে একাধিক সরকারি প্রকল্পে সুবিধে তুলে দিয়েছেন তিনি৷ সেই উপভোক্তাদেরই গতকাল প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে প্রশাসন৷ প্রথমে সবাইকে মালদায় ডাকা হয়৷ এর মধ্যে মালদার পাশাপাশি দুই দিনাজপুরের মানুষজনও ছিলেন৷ মালদায় প্রথম পর্বের প্রশিক্ষণ শেষে বাসে চাপিয়ে রাতে তাঁদের নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল মুখ্যমন্ত্রীর সভাস্থলে৷ সেখানে দ্বিতীয় পর্বের প্রশিক্ষণ দেওয়ার কথা ছিল তাঁদের৷ সেখানে যাওয়ার পথেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ১২ নম্বর জাতীয় সড়কের ধারে নয়ানজুলিতে উলটে যায় বাসটি৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় দুই মহিলার৷ আহত হন প্রায় ৪০ জন৷ সভা শেষে মৃত নিয়তিদেবীর বাড়িতে যান রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম৷ ফিরহাদের সঙ্গে ছিলেন রাজ্যের আরও দুই মন্ত্রী বিপ্লব মিত্র ও সাবিনা ইয়াসমিন এবং রাজ্যসভার সাংসদ মৌসম নুর৷ রাজ্য সরকারের তরফে নিয়তিদেবীর মেয়ের হাতে ২ লক্ষ টাকার চেক তুলে দেন ফিরহাদ৷ পরিবারের একজনকে সরকারি চাকরি দেওয়ার কথাও জানান৷



অন্যদিকে, এদিন বক্তব্য রাখার শুরুতেই গতকাল রাতের বাস দুর্ঘটনায় দুই মহিলার মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ ঘটনাপ্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী সভামঞ্চ থেকে বলেন, বেপরোয়াভাবে বাস চালানোর জন্যই গতকাল রাতে দুর্ঘটনা হয়েছিল বলে তিনি জানতে পেরেছেন৷ এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট চেয়েছেন তিনি৷ দুর্ঘটনাও এক ধরনের খুন৷ এনিয়ে রাজ্যে আগে থেকেই কঠোর আইন রয়েছে৷ গতকাল রাতে মৃত শাঁওলি হাঁসদা ও নিয়তি সরকারের পরিবারকে সমবেদনা জানানোর ভাষা নেই৷ ফিরহাদ হাকিম ও গোলাম রব্বানিকে ওই দুই পরিবারের পাশে দাঁড়াতে বলা হয়েছে৷ তাঁদের সবরকম সাহায্য করতে বলা হয়েছে৷ সবার কাছে তিনি আবেদন জানাচ্ছেন, বাইরে কাজ করতে গেলে সবাই যেন প্রশাসনের কাছে নিজেদের যাবতীয় তথ্য দিয়ে যান৷




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comentários


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page