top of page

করোনা ত্রাসে গাজোলে ঘটা করে মঙ্গলচণ্ডী পুজো

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে দেবতার শরণাপন্ন গাজোলের বাসিন্দারা। চলতে থাকে পুজো। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় গাজোল থানার পুলিশ। ঘটনাস্থলে পৌঁছে জমায়েত সরিয়ে দেয় পুলিশ। যদিও ১ মিটার দূরত্ব বজায় রেখে অঞ্জলি দিয়ে পুজো শেষ করেন এলাকাবাসীরা।


Worshipped Village goddess in Gazole

গ্রামদেবতার পুজোতে দূরত্ব বজায় রেখে হল অঞ্জলি


গাজোলের কাশিমপুর গ্রামের এক প্রান্তে রয়েছে বেশ কয়েকটি দেবদেবীর থান। বহু পুরোনো গাছপালায় ঘেরা এই স্থানেই পুজো করে থাকেন গ্রামবাসীরা। যে কোনও বিপদ-আপদ থেকে বাঁচতে এই সমস্ত দেবদেবীর শরণাপন্ন হন গ্রামবাসীরা। এবার করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে গ্রামকে বাঁচাতে আজ গ্রাম দেবতার শরণাপন্ন হলেন তাঁরা।



শঙ্কর সরকার, স্থানীয় বাসিন্দা


করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে এদিন গ্রামের অন্যতম দেবতা মঙ্গলচণ্ডী কালীর পুজো করছেন তাঁরা। এই দেবী খুবই জাগ্রত। বর্তমানে করোনা নিয়ে চারিদিকে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। সেই আতঙ্ক থেকে বাঁচতেই আমরা পুজো করছি।

তিনি আরও বলেন, করোনা সংক্রমণ এড়াতে আমরা যেমন বিজ্ঞানের উপর ভরসা রাখছি তেমনি ভরসা রাখছি দেবদেবীদের ওপরও। পুজোর খবর পেয়ে গ্রামে ছুটে আসেন গাজোল থানার ওসি হারাধন দেব। তিনি একসঙ্গে জমায়েত না হওয়ার পরামর্শ দেন। তাঁর সেই পরামর্শ আমরা মেনে নিয়েছি। পুজো দিতে আসা গ্রামের মানুষেরা ১ মিটার দূরত্ব বজায় রেখেছেন। একসঙ্গে সবাই অঞ্জলি না দিয়ে একজন দুইজন করে অঞ্জলি দিয়েছেন।


মালদা জেলার খবর ও বিনোদনের লেটেস্ট ভিডিয়ো আপডেট পেতে ক্লিক করুন



বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page