top of page

স্ত্রীর চিকিৎসায় ভিনরাজ্যে যাওয়ার টাকা শেষ, আত্মহত্যা করল শ্রমিক

ঋণ পরিশোধ করতে না পেরে মানসিক অবসাদে আত্মঘাতী হল শ্রমিক। আজ সকালে ঘর থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়েছে মালদা থানার পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে মালদা থানার সাহাপুরের বিমল দাস কলোনি এলাকায়।


মৃত শ্রমিকের নাম সুভাষ সিং (৩৫)। স্ত্রী শম্পা সিং গৃহবধূ। তাঁদের ছয় ছেলেমেয়ে। জানা গেছে, শ্রমিকের কাজে ভিনরাজ্যে যাওয়ার জন্য ১৫ হাজার টাকা ঠিকাদারের কাছ থেকে ধার নিয়েছিল সুভাষ। কিন্তু স্ত্রীর অসুস্থতার জন্য সমস্ত টাকা খরচ হয়ে যায় সুভাষের। এরপরেই মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে সুভাষ। আজ তার ভিনরাজ্যে যাওয়ার কথা ছিল। তবে আজ সকালে ঘর থেকে সুভাষের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেলে পাঠিয়েছে মালদা থানার পুলিশ।


প্রতিমা হালদার, সুভাষ সিংয়ের বোন

দাদা ঠিকাদারের কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা অগ্রিম নিয়েছিল। বউদির অসুস্থতার জন্য সেই টাকা খরচ হয়ে যায়। বেশ কিছুদিন ধরে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিল দাদা। গতকাল দাদা আমাদের বাড়িতে বেড়াতে আসে। রাতে শোয়ার ঘরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে দাদা।


মালদা জেলার খবর ও বিনোদনের লেটেস্ট ভিডিয়ো আপডেট পেতে ক্লিক করুন





বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page