top of page

খবরের জেরে ভাঙন রোধের কাজে পুলিশ প্রশাসন

আমাদের মালদার খবরের জের। ব্রাহ্মণী নদীর ভাঙনের খবর প্রকাশ হতেই আজ পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভাঙন রোধের কাজ শুরু করা হয়। খাকি উর্দিতেই বালির বস্তা ফেলে ভাঙন রোধে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টায় খুশি এলাকাবাসী।


গত বছর থেকে পাড় কাটছে অখ্যাত ব্রাহ্মণী। ইতিমধ্যে নদীতে তলিয়ে গিয়েছে একাধিক বাড়ি। কিছু বাড়ির অর্ধেক অংশ এখন নদীতে। এবারও শুরু হয়েছে ব্রাহ্মণীর ভাঙন। আশঙ্কায় দিন ও রাত কাটাচ্ছে অন্তত ৩০টি পরিবার। আশঙ্কা রয়েছে আরও অনেকের। গোটা বিষয়টি জানানো হয়েছে বিডিও, এমনকি এসডিও দফতরেও। কিন্তু ভাঙন আটকানোর কাজ নিয়ে কাউকে মাথা ঘামাতে দেখা যায়নি। ঘটনার কথা বিলক্ষণ জানে পঞ্চায়েত সমিতি। রাজনীতির পাকচক্রে তারাও ভাঙন আটকাতে কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। এই পরিস্থিতিতে অনেকেই ঘরে রাত কাটাতে ভয় পাচ্ছিলেন। গত পরশু আমাদের মালদায় সেই খবর প্রকাশ হয়। এরপরেই বামনগোলা থানার পুলিশের পক্ষ থেকে ভাঙন রোধের কাজ শুরু করা হয়। পুলিশ প্রশাসনকে এভাবে পাশে পেয়ে খুশি এলাকাবাসী।






আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page