top of page

ব্রহ্মপুত্র মেলে থেকে উধাও জলজ্যান্ত মহিলা

সোনার গহনা ছিনতাই করার উদ্দেশ্যে ব্রহ্মপুত্র মেলের এসি কামরা থেকে এক মহিলাকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। গত সোমবার ভোরে ট্রেন যখন বারহাড়োয়া স্টেশন পেরোয়, তারপর নিখোঁজ হয় ওই মহিলা। ট্রেনের মধ্যে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও মহিলার হদিশ না পেয়ে জামালপুর স্টেশনে নেমে রেল পুলিশে অভিযোগ করেন মহিলা স্বামী। সেখানেও পুলিশের পক্ষ অসহযোগিতার অভিযোগও উঠেছে। এরপর গতকাল গভীর রাতে মালদা টাউন স্টেশনের জিআরপি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।



নিখোঁজ মহিলার বাড়ি কোচবিহার জেলার দিনহাটা ব্লকের ঝুড়িপাড়ায়, নাম নীলিমা রায়বর্মন। কর্মসূত্রে তিনি স্বামীর সঙ্গে হরিয়ানার বাহাদুরগড়ে থাকেন। ধূপগুড়ি স্টেশন থেকে গত রবিবার রাত ৮টা নাগাদ রাজু রায়বর্মন সঙ্গে স্ত্রী নীলিমা রায়বর্মন ও পাঁচ বছরের ছেলে ময়ঙ্ক রায়বর্মন ডাউন ব্রহ্মপুত্র মেলে সওয়ারি হন। ব্রহ্মপুত্র মেলের এসি এ-ওয়ান কামরায় তাঁদের টিকিট সংরক্ষিত ছিল। সোমবার ভোরে ট্রেনটি বারহাড়োয়া স্টেশন পেরলে ওই মহিলা শৌচাগারে যান। তারপর থেকেই তাঁকে আর খুঁজে পাওয়া যায় নি। খোঁজাখুঁজি করে স্ত্রী না পেয়ে ট্রেনের টিটিই ও রেল পুলিশকে বিষয়টি জানান মহিলার স্বামী রাজু রায়বর্মন। ট্রেনে স্ত্রীর খোঁজ না পেয়ে ছেলেকে নিয়ে জামালপুর স্টেশনে নেমে পড়েন রাজুবাবু। সেখানে রেল পুলিশে স্ত্রীর অপহরণের অভিযোগ জানাতে গেলে রেল পুলিশ তাঁদের অসহযোগিতা করেন বলে অভিযোগ তুলেছেন রাজুবাবু। এরপর সোমবার গভীর রাতে তাঁরা মালদা টাউন স্টেশনে ফিরে এসে মালদা জিআরপি থানায় স্ত্রীর অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন। রাজুবাবুর অনুমান, তাঁর স্ত্রীর গায়ে অনেক সোনার অলঙ্কার ছিল। সেসব ছিনতাই করতেই তাঁর স্ত্রীকে অপহরণ করা হয়েছে।


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page