top of page

স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

অবৈধ সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল বামনগোলায়। বর্তমানে মালদা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন মৃতের স্বামী। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে বামনগোলার হরিপুর এলাকায়।



মৃত গৃহবধূর নাম মাম্পি দাস (২৩)। বাড়ি হবিবপুরের বুলবুলচণ্ডী এলাকার সোনাডাঙ্গায়। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, দু’বছর আগে মাম্পির সঙ্গে বিয়ে হয় পেশায় প্যান্ডেল মিস্ত্রি, বিভাস দাসের। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকে অবৈধ সম্পর্কের সাথে জড়িয়ে পড়েছিল বিভাস। এনিয়ে মাঝেমধ্যেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ লেগেই থাকত। স্ত্রী প্রতিবাদ করলে তাঁর অত্যাচার করত বিভাস। গতকাল ফের প্রতিবাদ করে মাম্পি। সেই সময় বিভাস স্ত্রীর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। চিৎকারে স্থানীয় লোকজন লোকজন তাঁকে প্রথমে মুদিপুকুর গ্রামীণ হাসপাতাল ও মালদা মেডিকেল কলেজে ভরতি করে। আজ সকালে মৃত্যু হয় মাম্পির।




যদিও অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছে বিভাস। সে জানায়, মাঝেমধ্যে সামান্য কারণে তাদের ঝামেলা লেগে থাকত। তবে তার কোনও অবৈধ সম্পর্ক ছিল না। গতকাল স্ত্রী ঝামেলা করে নিজের গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। বাঁচাতে গেলে তার নিজের হাত-পা পুড়ে যায়।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page