top of page

বোলতার চাকে ঢিল, কামড়ে মৃত্যু সপ্তম শ্রেণির পড়ুয়ার

খেলার ছলে বোলতার চাকে ঢিল মারা। এরপরেই একঝাঁক বোলতার কামড়ে মৃত্যু সপ্তম শ্রেণির পড়ুয়ার। ঘটনাটি ঘটেছে হবিবপুরের বাবুপাড়া এলাকায়। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠিয়েছে পুলিশ।


মৃত কিশোরের নাম সৌরভ দাস (১২)। সৌরভ আইহো হাইস্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ছিল। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল স্কুল থেকে ফেরার পর পাড়ারই এক ছেলের সঙ্গে পুকুরপাড়ে খেলতে গিয়েছিল সৌরভ৷ সেখানে খেলার ছলে ওই চাকে ঢিল মারে সৌরভ৷ সঙ্গে সঙ্গে বোলতার দল তাদের পিছনে তাড়া করে৷ দুজনেই ঘটনাস্থল থেকে পালানোর চেষ্টা করে। তবে পালাতে গিয়ে হোঁচট খেয়ে পড়ে যায় সৌরভ৷ প্রায় ৫০-৬০টি বোলতা সৌরভের সারা শরীরে হুল ফোটায়৷ যন্ত্রণা নিয়ে বাড়ি ফেরে সে। পরিবারের লোকজন কেরোসিন ঢেলে বিষ কাটানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু সৌরভের শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। অবশেষে সৌরভকে প্রথমে স্থানীয় গ্রামীণ হাসপাতাল ও পরে মালদা মেডিকেল কলেজে ভরতি করা হয়। রাতেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় সৌরভের।



এক প্রতিবেশী সুইটি দাস জানান, গতকাল বিকেলে এক বন্ধুর সঙ্গে পুকুরপাড়ে খেলতে গিয়েছিল সৌরভ৷ খেলার সময় বোলতার চাকে ঢিল মারে সে৷ বোলতার হুল ফোটানোর পরে কোনোরকমে বাড়ি ফিরে আসে সৌরভ। যন্ত্রণায় চিৎকার করতে থাকায় প্রথমে সৌরভকে স্থানীয় হাসপাতাল পরে মালদা মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত দেড়টা নাগাদ সৌরভের মৃত্যু হয়।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page