top of page

কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের কথা মালখানের গলাতেও

উত্তরবঙ্গকে পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের আওয়াজ এবার কেএলও ধৃত নেতার গলাতেও৷ গতকাল রাতে মালদা জেলা আদালত থেকে পুলিশি হেপাজতে থানায় যাওয়ার সময় কেএলও নেতা মাধব মণ্ডল ওরফে মালখান সিংয়ের গলায় এমন কথা উঠে আসে৷


সম্প্রতি উত্তরবঙ্গকে রাজ্য থেকে আলাদা করে পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণার কথা হাওয়ায় ভাসতে শুরু করেছে। বিজেপির অনেকে নেতা আবার ডিসেম্বরের কথা বলছেন। কিন্তু ডিসেম্বরে কি হবে, তা শোনা যাচ্ছে না কারো মুখে। কিছুদিন আগে উত্তরের রাজবংশী নেতা অনন্ত রায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করে বেরিয়েই ডিসেম্বরে পৃথক উত্তরবঙ্গের কথা ঘোষণা করেছিলেন৷ যদিও ভোটের আগে নিজেদের পালে হাওয়া লাগাতে এটা বিজেপির স্ট্রাটেজি বলে মনে করছেন অনেকেই।


সম্প্রতি জলপাইগুড়ির খড়িবাড়ি থেকে কামতাপুর লিবারেশন অর্গানাইজেশনের অন্যতম শীর্ষনেতা মালখান সিংকে গ্রেফতার করে রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স৷ গতকাল মালখানকে মালদা জেলা আদালতে পেশ করা হয়৷ আদালত থেকে বেরোনোর সময় মালখান জানায়, পুলিশ তার বিরুদ্ধে ভুয়ো মামলা রুজু করেছে৷ পুলিশ কেস দেওয়ার জায়গা পাচ্ছে না৷ যতদিন তাকে পুলিশের হেফাজতে রাখা হবে, ততদিন সে অনশন আন্দোলন করবে৷ আর ডিসেম্বরের শেষের দিকেই উত্তরবঙ্গকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসাবে ঘোষণা করে দেওয়া হবে৷


এই ইস্যুতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী নিশীথ অধিকারী জানান,

এখনও পর্যন্ত উত্তরবঙ্গকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গঠনের কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি৷ সিদ্ধান্ত হলে সবাই জানতে পারবেন৷ উত্তরবঙ্গের মানুষের মনে বঞ্চনার খেদ রয়েছে৷ এই প্রশ্ন কখন আসে? কেন আসে? এমন প্রশ্ন উঠতে শুরু করলেই রাজ্য সরকারকে এনিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত৷ মানুষের দাবিকে সম্মান জানিয়ে কাজ করা হলে এমন প্রশ্ন উঠবে না৷ মানুষের দাবিকে বিজেপি সম্মান জানায়।



আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page