top of page

বন্দুক ধরা হাতেই তৈরি হচ্ছে প্রতিমা, থাকছে উষ্ণায়নের বার্তা

একের পর এক দৈনন্দিন ব্যবহৃত সামগ্রী দিয়ে প্রতিমা তৈরি করে ইতিমধ্যেই সকলের নজর কেড়েছেন পেশায় হোমগার্ড বিষ্ণুচন্দ্র সাহা। তাঁর প্রতিটি প্রতিমার মধ্য দিয়েই তিনি সমাজের উদ্দেশ্যে বার্তা তুলে ধরেন। নিজের শিল্পের জন্য বিষ্ণুবাবু বিশ্ব বাংলা সম্মানেও ভূষিত হয়েছেন।



ইংরেজবাজারের কৃষ্ণকালিতলার বাসিন্দা বিষ্ণুচন্দ্র সাহা। পরিবারে রয়েছে স্ত্রী পূর্ণিমা সাহা ও এক মেয়ে। বিষ্ণুবাবু ছোটো থেকে হস্তশিল্পের প্রতি বিশেষ আকর্ষণ রয়েছে। সেই টানেই নিজের পেশার পাশাপাশি শিল্প চর্চাও করে যাচ্ছেন তিনি। প্রতিবছরই দুটো করে দুর্গার প্রতিমা তৈরি করেন তিনি। কাগজের প্রতিমা তৈরি করে ২০১৬ সালে বিশ্ব বাংলা সম্মানে সম্মানিত হয়েছিলেন তিনি। শুধু তাই নয়, একাধিকবার বিভিন্ন সংস্থার তরফ থেকেও সম্মানিত করা হয়েছে তাঁকে। এ বছর তিনি বেছে নিয়েছেন বাঁকুড়ার ডোকরা শিল্পকে। বিশ্ব উষ্ণায়নের বার্তা দিতে প্রস্তুত তাঁর এই অভিনব প্রতিমা। প্রতিমা তৈরিতে তিনি ব্যবহার করেছেন মাছ ধরার জালের সুতো। শহরের ২ নম্বর গর্ভমেন্ট কলোনি বাঘাযতীন ক্লাবে পূজিত হবে এই প্রতিমা।


বিগত বছরে বিষ্ণুচন্দ্রের তৈরি কাগজের প্রতিমা শহরবাসীর নজর কেড়েছিল। এবারও সুতোর প্রতিমা সকলের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকবে, সে ব্যাপারে তিনি যথেষ্ট আশাবাদী। শিল্পী বিষ্ণুচন্দ্র সাহার এই শিল্পচর্চায় পাশে এসে দাঁড়িয়েছে পুলিশ প্রশাসনও। পুজো আসতেই মালদার এই শিল্পীর নতুন শিল্পের খোঁজে তাকিয়ে থাকে সারা শহর।


ছবি: মিসবাহুল হক।

Comentários


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page