top of page

প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় উত্তরপ্রদেশের যুবতি

বিয়ের দাবিতে উত্তরপ্রদেশ থেকে ছুটে এসে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় বসেছেন যুবতি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ায় গা ঢাকা দিয়েছে প্রেমিক, এমনই অভিযোগ স্থানীয়দের। ঘটনাটি ঘটেছে হরিশ্চন্দ্রপুর-১ ব্লকের মহেন্দ্রপুর গ্রামপঞ্চায়েত এলাকায়।


স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, উত্তরপ্রদেশের বিজনৌর জেলার মান্ডাবর থানা এলাকার ওই যুবতির দাদুর বাড়ি রয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুরের মহেন্দ্রপুর এলাকায়। প্রায় তিন বছর আগে দাদুর বাড়ি ঘুরতে এসে ওই যুবকের সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। তাঁদের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক তৈরি হয়। ধীরে ধীরে তা প্রেমের সম্পর্ক পরিণত হয়। এরপর বেশ কয়েকবার ওই যুবক উত্তরপ্রদেশে গিয়ে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করে। এখন বিয়ের কথা বলায় প্রেমিকাকে এড়িয়ে যাচ্ছে ওই যুবক বলে অভিযোগ। বাধ্য হয়ে আজ বিয়ের পোশাক পড়ে ওই যুবকের বাড়ির সামনে ধরনায় বসে ওই যুবতি। যদিও প্রেমের সম্পর্কের কথা কিছুই জানা নেই বলে দাবি, যুবকের পরিবারের।



এদিকে ওই যুবতি দাবি করছেন, তিন বছর ধরে তাঁদের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। বিয়ের কথা বলে তাঁকে নিয়ে দিল্লির হোটেলে ১৯ দিন ছিল প্রেমিক। তাঁর থেকে দফায় দফায় দেড় লক্ষ টাকা নিয়েছে ওই যুবক। দিল্লি থেকে আজমের শরীফে নিয়ে গিয়ে তাঁকে ফেলে পালিয়ে যায় প্রেমিক। বাধ্য হয়ে আজ তিনি প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় বসেছেন।


ওই যুবকের পরিবারের দাবি, ওই যুবক বাড়িতে নেই। তাঁদের প্রেমের সম্পর্কে পরিবারের কারো কাছে কোনও খবর নেই।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Kommentare


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page