top of page

একই দড়িতে ঝুলন্ত দেওর ও বউদির দেহ

আজ সকালে রাঙামাটিয়া গ্রামের মাহাতপুকুর খাঁড়ির ধারে একটি গাছের ডালে একই দড়িতে দেওর ও বউদির দেহ ঝুলতে দেখেন এলাকার মানুষজন। খবর পেয়ে পুলিশ দেহ দুটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গাজোলের বাবুপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের রাঙামাটিয়া গ্রামে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারণা, প্রেমঘটিত কারণেই ওই দুজন আত্মহত্যা করেছে।


বছর পঁচিশের মৃত দেওরের নাম রবীন কিসকু। গাজোল কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। তাঁর বউদির নাম জংলি সোরেন, বয়স ৩৩। বেশ কয়েক বছর আগে জংলির সঙ্গে রবীনের দাদা বুলাই বেসরার বিয়ে হয়। তাঁদের তিনটি ছেলে রয়েছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বছরখানেক ধরে রবীনের সঙ্গে জংলির সম্পর্ক গাঢ় হয়ে ওঠে। তাঁদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কও তৈরি হয়। বিষয়টি সম্প্রতি জেনে ফেলেন বুলাই। এনিয়ে জংলি ও তাঁর স্বামীর মধ্যে অশান্তি দেখা দিয়েছিল। সম্ভবত সেকারণেই রবীন ও জংলি আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।


একই দড়িতে ঝুলন্ত দেওর ও বউদির দেহ

বছরখানেক ধরে রবীনের সঙ্গে জংলির সম্পর্ক গাঢ় হয়ে ওঠে।

বিষয়টি সম্প্রতি জেনে ফেলেন স্বামী।


গাজোল থানার পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনায় আপাতত দুটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করা হয়েছে এবং গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন


Commentaires


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page