top of page

কাকার ঘর ভেঙে দখল, অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা

কাকাকে ঘর থেকে উচ্ছেদ করার অভিযোগ উঠল তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তৃণমূল নেতা। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুরের মহেন্দ্রপুর গ্রামপঞ্চায়েত এলাকার আলিনগর গ্রামে।


আলিনগরের বাসিন্দা, রবিউল সাহেব পরিবার নিয়ে দিল্লিতে নিরাপত্তারক্ষীর কাজে গিয়েছিলেন। সেই সময় বাড়ি দেখভালের দায়িত্ব দিয়ে গিয়েছিলেন এলাকায় দাপুটে তৃণমূল নেতা হিসেবে পরিচিত ভাইপো আলাউদ্দিন সাবির ও ভাই সফিজুদ্দিনকে। লকডাউনে কাজ হারিয়ে বাড়ি ফিরে দেখেন তাঁদের বাড়ি ভেঙে ওই জমিতে মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে বড়ো বাড়ি। রবিউল সাহেব খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, তাঁর ভাইপো সেই বাড়ি করেছে। অভিযোগ, বাড়িতে উঠতে গেলে স্ত্রী, তিন ছেলেমেয়ে সহ রবিউল সাহেবকে গলাধাক্কা দিয়ে বের করে দেন আলাউদ্দিন। বাধ্য হয়ে গত তিনদিন ধরে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেড়াতে হচ্ছে ওই পরিবারকে। অবশেষে তাঁদের আশ্রয় হয়েছে আলিনগর প্রাথমিক স্কুলে। কাজ হারিয়ে, জমি-বাড়ি হারিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি ছাড়া আর কোনও উপায় খুঁজে পাচ্ছেন না রবিউল।



রবিউল বলেন, দিল্লিতে কাজে যাওয়ার সময় ভাই আর ভাইপোকে বাড়ির দায়িত্ব দিয়ে গিয়েছিলাম। এসে দেখি আমাদের বাড়িঘর সব ভেঙে জায়গা দখল করে নেওয়া হয়েছে। এটা আমার পৈতৃক ভিটে। এই জমির বদলে যে জমি পেয়েছি তা জলাজমি। সেখানে ঘর তৈরি করা সম্ভব না। পঞ্চায়েত, বিধায়ক সকলকে জানিয়েছি। ভাইপো তৃণমূল করায় প্রশাসন কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না।




এদিকে অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করে আলাউদ্দিন বলেন, জায়গার বদলে জায়গা দেওয়া হয়েছে। এখন তাঁরা ঘর না করতে পারলে তার দায় আমার নয়। তবু আমাকে বললে আমি ঘর করে দেওয়ার চেষ্টা করব। আমার তৃণমূল করার সাথে এর কোনো সম্পর্ক নেই। দলকে এই ঘটনায় জড়িয়ে লাভ নেই।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Opmerkingen


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page