top of page

বাংরুয়ায় শুরু হল সেন আমলের পীরবাবার নামে উরস

হরিশ্চন্দ্রপুরের বাংরুয়া গ্রামে শুরু হল ঐতিহ্যবাহী উরস মেলা। সকাল থেকেই ভক্তরা মেলা প্রাঙ্গণে ভিড় জমাতে শুরু করে। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলার পাশাপাশি বিহার এবং ঝাড়খণ্ড থেকে লক্ষাধিক ভক্তরা এই মেলায় ভিড় জমায়। মানত পূরণ হলে ভক্তরা পীরবাবার দরবারে সিন্নি চাদর ও মুরগি দিয়ে থাকেন।



জানা গিয়েছে, কয়েকশো বছর আগে বাংরুয়া গ্রামে মহামারী দেখা দিয়েছিল। হজরত শা খিজির রহমতুল্লা আলে-ইহের স্বপ্নাদেশ পেয়ে গ্রামবাসীরা তাঁর মাজারে চাদর চড়ান। এরপর থেকেই মহামারীর তীব্রতা কমতে থাকে। একসময় পুরো এলাকা মহামারী থেকে মুক্তি পায়। সেই সময় সেন বংশের নবাব লক্ষণ সেন এই মহিমা দেখে পীরের জন্যে হরিশচন্দ্রপুরে করমুক্ত কয়েক বিঘা জমি দান করেন। ১৯৪৭ সালে স্বাধীনতার পরে গ্রামের বাসিন্দাদের উদ্যোগেই ওই পীরের নামে সেখানে একটি উরস মেলার আয়োজন করা হয়। বাংলা অগ্রহায়ণ মাসের ১০ ও ১১ তারিখে দুদিন সেখানে উরস উৎসব হয়ে থাকে। পীরবাবার চিল্লাখানায় সিন্নি দেওয়ার রীতি রয়েছে।




মেলার সম্পাদক উমর আলি জানান, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, মাস্ক ব্যবহার ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি সেভ ড্রাইভ সেফ লাইফ ও স্বচ্ছ ভারত অভিযানকেও প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। মেলার দিনগুলিতে এখানে কাওয়ালির আসর বসে।

আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page