top of page

পরকীরার জেরে স্বামীকে খুনের অভিযোগ স্ত্রীর বিরুদ্ধে

পরকীয়ার জেরে স্বামীকে খুনের অভিযোগ স্ত্রী সহ প্রেমিকের বিরুদ্ধে। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তে পাঠিয়ে অভিযুক্ত স্ত্রীকে আটক করেছে পুলিশ। তবে ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত স্ত্রীর প্রেমিক পলাতক। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে চাঁচল ১ ব্লকের শংকরটোলা গ্রামে।

মৃত স্বামীর নাম নারায়ণ দাস (৩৫)। নারায়ণবাবু পরিযায়ী শ্রমিকের কাজ করতেন। জানা গিয়েছে, প্রায় ৬ বছর আগে পবিত্রা দাসের সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। তাঁদের দুই ছেলেমেয়ে। অভিযোগ, বছর তিনেক আগে এলাকার এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয় পবিত্রার। সেই সময় নারায়ণ ভিনরাজ্যে কাজে ছিলেন। ধীরে ধীরে তাদের মধ্যে ঘনিষ্টতা বাড়তে থাকে। এনিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়শই অশান্তি লেগে থাকত। সম্প্রতি মুম্বই থেকে বাড়ি থেকে নারায়ণ। গতকাল বোনকে ডাক্তার দেখাতে মালদা শহরে যান তিনি। সেই সুযোগে পবিত্রার প্রেমিক বাড়িতে যায়। রাতে বাড়ি ফিরে দু’জনকে হাতেনাতে ধরে ফেলে নারায়ণ। এরপরই নাকি দুজনে মিলে নারায়ণকে খুন করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে দেয়। আজ সকালে গ্রামবাসীরা বিষয়টি জানতে পেরে পবিত্রাকে আটক করে পুলিশে খবর দেন।



নারায়ণের বউদি জয়া দাস জানান,

গতকাল বোনকে ডাক্তার দেখাতে মালদা নিয়ে যায় নারায়ণ৷ রাত আটটা নাগাদ ঘরে ফেরে। প্রতিদিন রাতেই স্নান করে নারায়ণ আমাদের বাড়িতে আসে৷ কিন্তু গতকাল আসেনি৷ আজ সকালে পবিত্রা জানায় নারায়ণ দেহ ঝুলছে। নারায়ণ আত্মহত্যা করতে পারে না। ওর বউ পবিত্রা, পরকীয়ায় জড়িত৷ প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়েও ৬ মাস বাইরেও ছিল৷ গতকাল প্রেমিককে সঙ্গে নারায়ণকে খুন করেছে পবিত্রা। ওদের ২ জনের কঠোর শাস্তির দাবি করছি।

আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page