top of page

অনাস্থা প্রক্রিয়া অবৈধ, রায় আদালতের

হরিশ্চন্দ্রপুরের মালিওর ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের অনাস্থা ঘিরে নয়া নাটক। গতকালই অনাস্থার তলবি সভায় হেরে অপসারিত হয়েছিলেন প্রধান তোরনা খাতুন। অনাস্থা অবৈধ বলে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তোরিনা। তোরিনার আইনজীবী সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রধানের সমর্থনে তলবি সভার প্রক্রিয়া অবৈধ বলে রায় দিয়েছে আদালত।


প্রশাসন ও পঞ্চায়েত সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রধানের বিরুদ্ধে গত ২ নভেম্বর অনাস্থা প্রস্তাব পেশ হয়। তার পরিপ্রেক্ষিতে বিডিও বিজয় গিরি ২৩ নভেম্বর অনাস্থার তলবি সভা ডাকার নির্দেশ দেন। কিন্তু এরই মধ্যে ওই পঞ্চায়েত এলাকায় তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর দ্বন্দ্বে এলাকা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এলাকায় একাধিকবার গুলি চালানোর ঘটনা সামনে আসে। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় তলবি সভায় পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দেওয়া সম্ভব নয় বলে পুলিশের তরফে জানানো হয়। ফলে ২৩ নভেম্বরের তলবি সভা বাতিল করে গতকাল তলবি সভার দিন স্থির হয়। সেই তলবি সভায় হেরে অপসারিত হন প্রধান তোরিনা খাতুন।


তোরিনার আইনজীবী সূত্রে জানা গিয়েছে, পঞ্চায়েত আইন অনুযায়ী অনাস্থা পেশ হওয়ার পর এক মাসের মধ্যেই তলবি সভা ডাকতে হবে। কিন্তু এক্ষেত্রে অনাস্থার চিঠি দেওয়ার পর যে তলবি সভা হয়েছে, তা প্রায় দেড় মাস বাদে। ফলে শুক্রবারের অনাস্থার তলবি সভা ও ওই সংক্রান্ত যাবতীয় রেজুলেশন সবকিছুই অবৈধ বলে আদালত রায় দিয়েছে।



আরও জানা গিয়েছে, অনাস্থাকারীরা ফের নতুন করে অনাস্থা প্রস্তাব জমা দেওয়ার জন্য আদালতে আবেদন করেছিলেন। কিন্তু আদালত সেই আবেদনও খারিজ করে দেয়। ফলে নতুন করে আর অনাস্থা পেশ করার সুযোগ না থাকায় প্রধান থাকবেন তোরিনা খাতুন।





আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page