top of page

বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে খুন হলেন শিল্পী

বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে পিটিয়ে খুন করা হল এক ব্যক্তিকে৷ গতকাল রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ওল্ড মালদা পুরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের শর্বরী এলাকায়৷অভিযোগ, মৃত ব্যক্তিকে বাঁচাতে প্রতিবেশীদের সাহায্য চাওয়া হলেও কেউ সাহায্য করেনি৷ এমনকি থানায় ফোন করলেও আসেনি পুলিশও৷ তবে এই ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে মালদা থানার পুলিশ।



মৃত ব্যক্তির নাম ভূপাল প্রামাণিক (৪৮)৷ ভূপালবাবু একজন হস্তশিল্পী ছিলেন৷ অভিযোগ, বছর দুয়েক আগে এলাকারই বাসিন্দা সীমা দাস ভূপালবাবু কাছে কাজ শিখতে আসে৷ কিছুদিন পরে সীমাদেবী, ভূপালবাবুকে নিয়ে পালিয়ে যায়৷ পরে সীমাদেবী অভিযোগ করেন, ভূপালবাবু তাঁকে ধর্ষণ করেছে৷ ক্ষতিপূরণ হিসেবে সীমাদেবী ১০ লক্ষ টাকা দাবি করে৷ টাকা দিতে না পারায় ভূপালবাবুর নামে থানায় অভিযোগ জানান হয়। এরপরেই ভূপালবাবুকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷ গত ১০ সেপ্টেম্বর জেল হয় ভূপালবাবুর৷ গত ১৬ অগাস্ট ভূপালবাবু জেল থেকে ছাড়া পান। সীমাদেবীরা হুমকি দেয়, ১০ লক্ষ টাকা না দিলে ভূপালবাবুকে খুন করে ফেলবে তারা৷ অবশেষে সোমবার সন্ধেয় বাড়ির দরজা ভেঙে রান্নাঘরে ঢুকে ভূপেনবাবুকে পিটিয়ে মেরে ফেলে সীমাদেবী, তাঁর বাবা সহ ১০-১২ জন।


ভূপালবাবুর স্ত্রী তপতিদেবীর অভিযোগ, তিনি গতকাল সন্ধেয় প্রতিবেশীদের সাহায্য চান। কিন্তু কেউ সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেননি। এমনকি পুলিশেও একাধিকবার ফোন করেছেন। কিন্তু পুলিশও আসেনি। পুলিশ সময়মতো এলে এই ঘটনা ঘটত না।

মালদা থানার পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনায় মিলন দাস নামে এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে৷ তবে পুলিশের বিরুদ্ধে তপতীদেবীর অভিযোগ নিয়ে কোনো পুলিশকর্তা মুখ খুলতে চাননি৷

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page