top of page

মালদা থেকে ছুরি কিনেছিল সুশান্ত

যাকে জীবনে আপন করে নেওয়ার স্বপ্ন দেখেছিল, তাঁকেই ছুরি দিয়ে প্রকাশ্য রাস্তায় কুপিয়ে খুন করে সুশান্ত। সুতপাকে খুন করার নীল নকশা অনেক আগেই কষেছিল সুশান্ত চৌধুরি। আর সে জন্যই ধারালো ছুরি কিনেছিল সে। ইংরেজবাজারের নেতাজি মার্কেট থেকে ছুরি কিনে খুনের ফন্দি এঁটেছিল সুশান্ত। তদন্তে নেমে এমনই তথ্য জানতে পেরেছে পুলিশ।



বৃহস্পতিবার রাতে সুশান্ত চৌধুরিকে নিয়ে মালদায় আসে বহরমপুর পুলিশের একটি দল। ইংরেজবাজার পুলিশের সঙ্গে যৌথভাবে তদন্তে নামে বহরমপুর থানার পুলিশ। সুশান্তকে নিয়ে প্রথমে নেতাজি বাজারে যায় পুলিশ। বাজারে ঘুরে সুশান্ত নিজেই দেখিয়ে দেয় সে কোন দোকান থেকে ছুরি কিনেছিল। চোখের সামনে সুতপা খুনের আসামিকে দেখে হতভম্ব হয়ে পড়েন বাজারের লোকজন।



বাজারে তদন্ত শেষে সুশান্তকে নিয়ে যাওয়া এয়ারভিউ কমপ্লেক্সে। সেখানে অবশ্য সুশান্তর পিসির বাড়িতে তালা ঝুলতে দেখেন তদন্তকারী অফিসাররা। এর আগে সুতপার বাবাকেও জেরা করে বহরমপুর থানার পুলিশ। মঙ্গলবার সুতপার বাবা স্বাধীন চৌধুরিকে জেরা করে অনেক তথ্য জানতে পেরেছিল পুলিশ। স্বাধীনবাবু অবশ্য সাংবাদিকদের সামনে মুখ খুলতে চাননি। শুধু বলেন, তদন্তে সব রকমের সাহায্য করছেন।




তদন্তে আরও জানা গিয়েছে, ২০১৭ সালে সুশান্তর বিরুদ্ধে জেনারেল ডায়ারি করেছিলেন সুতপার বাবা স্বাধীন চৌধুরি। সুতপার বাবা বলেন, ২০১৭ তে আমি ইংরেজবাজার মহিলা থানায় ডায়ারি করি। সে সময় জানিয়েছিলাম, আমার মেয়েকে রাস্তাঘাটে উত্যক্ত করত সুশান্ত।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page