top of page

আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হয়ে বিষ পান মহিলার

ইসলামী বর্ষপঞ্জি অনুসারে বর্তমানে চলছে পবিত্র রমজান মাস। রমজান মাস শেষে পবিত্র ঈদলফেতর উৎসব। স্বাভাবিকভাবেই এই সময় নিয়মিত পারিশ্রমিকের প্রয়োজন হয় মুসলিম সম্প্রদায়ের শ্রমিকদের যা পাচ্ছিলেন না সাগরি খাতুন নামে এক মহিলা বিড়ি শ্রমিক। ফলে চরম অভাবের মধ্যে দিয়ে তাঁকে সংসার চালাতে হচ্ছিল। সংসার চালানোর আর্থিক কষ্ট সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করলেন তিনি। মালদার বৈষ্ণবনগর থানার পারদেওনাপুর এলাকায় এই দুঃখজনক ঘটনাটি ঘটেছে।


প্রতীকী ছবি সৌজন্যে পিক্স অ্যাবে।

জানা গিয়েছে, মৃত সাগরি খাতুনের কয়েকবছর আগে বিয়ে হলেও স্বামীর সাথে বনিবনা না হওয়ায় বিবাহ বিছেদ হয়। তারপর থেকে বাবার বাড়িতে থাকতেন তিনি। তার বাবা রইসউদ্দিন শেখ পেশায় দিনমজুর। বিড়ি বেঁধে সংসার চালাতেন সাগরি। তাঁর আত্মীয়রা জানান পারিশ্রমিক না পেয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই চরম আর্থিক সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। আর সেই কারণেই রবিবার রাতে বাড়িতে থাকা বিষ পান করেন সাগরি খাতুন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরে বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ।

মৃতার দাদা ইসলাম শেখ জানান, দারিদ্রের কারণে সাগরির সংসারে অভাব দেখা দেওয়ায় বিড়ি বেঁধে এবং বাবা দিনমজুরের কাজ করে কোনোরকমে তাদের সংসার চালাত। বর্তমানে রমজান মাস চলছে। এই মাসে স্বাভাবিকভাবেই তাদের খরচ বেশি হয়ে থাকে। আর বিড়ি বাধার পারিশ্রমিক না পাওয়ায় এই খরচ সামলাবেন কি করে! এই ভাবনা চিন্তায় সাগরি বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করে বলে জানান তিনি।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page