top of page

আম চুরি করার শাস্তি জুতোর মালা, অপমানে আত্মঘাতী ছাত্র

আম চুরির অপরাধে দ্বাদশ শ্রেণির এক ছাত্রকে জুতোর মালা পরিয়ে গ্রামে ঘোরানো হয়েছিল বলে অভিযোগ। এরপরেই অভিমানে আত্মঘাতী হল ওই ছাত্র। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রতুয়ায় রতুয়ার মাকাইয়া ২ নম্বর কলোনি এলাকায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।



আত্মঘাতী ছাত্রের নাম সাহিন আখতার (১৮)। আজ সকালে নিজের ঘরে ঝুলন্ত অবস্থায় সাহিনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃতের পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, শামীম আখতার নামে স্থানীয় এক ব্যক্তির চার বিঘা আমের বাগান রয়েছে। সেই বাগান থেকেই আম চুরি করেছিল সাহিন। বাগানের মালিক শামীম এনিয়ে সালিশি সভা বসায়। সেই সভায় সাহিনকে জুতোর মালা পরিয়ে গ্রামের ঘোরানোর শাস্তি দেওয়া হয়। এই ঘটনায় সাহিনের বাবা-মা প্রতিবাদ করায় তাঁদেরও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। সেই অপমানে আত্মঘাতী হয় সাহিন।


মৃতদেহটিকে ময়নাতদন্তে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রতুয়া থানার পুলিশ। পুলিশসূত্রে খবর, এই ঘটনার পর পরিবার সমেত আম বাগানের মালিক পালিয়েছেন এলাকা থেকে। তবে এই ঘটনার এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি।



টপিকঃ #আমবাগান

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page