top of page

পারিবারিক অশান্তি এড়িয়ে রাতে পড়াশোনা করত সোমা

৪৮৭ নম্বর পেয়ে রাজ্যে নবম স্থান অধিকার করেছে মানিকচক শিক্ষা নিকেতনের সোমা সাহা৷ ভবিষ্যতে স্কুল শিক্ষক হতে চায় সোমা। মানিকচকের ধর্মটোলাগ্রামে বাড়ি তার। ছোটোবেলাতেই বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায় মা-বাবার। মায়ের সঙ্গে থাকে সোমা। মা ইতিশা সাহা সেলাই করে সামান্য কিছু টাকা উপার্জন করেন। সংসার খরচের দায়িত্ব বুড়ো কাঁধে তুলে নিয়েছেন সোমার দাদু।


Soma Saha, Manikchak

সোমা জানান, টেস্টে ভালো ফল করেছিলাম। আশা ছিল প্রথম থেকে দশমের মধ্যে স্থান পাব৷ বড়ো পরিবারে মুদির দোকান করে দাদু একমাত্র উপার্জন করেন। ফলে বাড়িতে মাঝেমধ্যেই অশান্তি লেগে থাকত। চিৎকার-চ্যাঁচামেচিতে পড়াশোনায় অসুবিধে হত৷ তাই রাতে পড়াশোনা করতাম৷ সরকারি সাহায্য পেলে ভবিষ্যতে পড়াশোনার পথ অনেকটা সহজ হয়ে যাবে।

Comentarios


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page