top of page

একসঙ্গে মৃত্যু জোড়া হরিণের

হঠাৎ মৃত্যু দুটি হরিণের। অসুস্থ রয়েছে আরও একটি হরিণ। গোটা ঘটনায় হরিশ্চন্দ্রপুর-২ নম্বর ব্লকের ডিয়ার পার্কের পরিকাঠামো নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। চিকিৎসার পরিকাঠামো নেই বলে সাফ জানিয়েছেন বিডিও।


হরিশ্চন্দ্রপুরে ব্লক অফিসের পাশেই রয়েছে ডিয়ার পার্ক। এই পার্কে মোট ৩২টি হরিণ ছিল। আজ সকালে পার্কে দুটি হরিণকে মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। বিষয়টি জানাজানি হতেই ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রের চিকিৎসককে ডেকে পাঠানো হয়। চিকিৎসকের মতে পার্কের আরও একটি হরিণ বেশ অসুস্থ রয়েছে।


বিডিও তাপসকুমার পাল জানান, আজ সকালে পার্কে দুটি হরিণকে মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। ব্লক প্রাণী সম্পদ দপ্তরের আধিকারিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এক চিকিৎসককে নিয়ে এসেছিলেন। দুটি হরিণের মৃতদেহের ময়নাতদন্তের কথা বলেছেন তাঁরা। আরও একটি হরিণ অসুস্থ হওয়ার কথাও জানিয়েছেন চিকিৎসক। এখানে ব্লক প্রাণী সম্পদ দফতরের সঠিক পরিকাঠামো নেই৷ প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে, চিকিৎসার অভাবেই হরিণ দুটির মৃত্যু হয়েছে।



ব্লক প্রাণীসম্পদ আধিকারিক অমিত খাটুয়া জানান,

হরিণের মৃতদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য মালদা পাঠানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এই ব্লক প্রাণী স্বাস্থ্যকেন্দ্রে দীর্ঘ ৮-৯ বছর ধরে স্থায়ী প্রাণী চিকিৎসক নেই৷ চিকিৎসার জন্য অস্থায়ী চিকিৎসক পাঠানো হয়। এভাবে প্রাণীদের চিকিৎসা করা কষ্টকর।

আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

留言


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page