top of page

চাঁচলে রাহুল গান্ধির সভা ১৫ মার্চের পরিবর্তে ২৩

রাহুল গান্ধির সভা ১৫ মার্চের পরিবর্তে ২৩ মার্চ চাঁচলের কলমবাগানে হবে। এদিন কংগ্রেসের সর্ব ভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধির সভাস্থল পরিদর্শন করতে এসে একথা জানান প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র।


গণি খানের নাম ভাঙিয়ে এতদিন জনসমর্থন পেয়েছিলেন মৌসম। খান পরিবার ছেড়ে যে হাল লেবুবাবুর হয়েছে তেমনটাই মৌসমের হবে।

তিনি বলেন, মৌসম দল ছেড়ে গেলেও ভোটে প্রভাব পড়বে না। মালদা বরকতদার মাটি। মৌসম যে ভোটে নির্বাচিত হয়েছিলেন তা গণি পরিবারের সদস্য হিসেবে পেয়েছেন। গণি খানের নাম ভাঙিয়ে এতদিন জনসমর্থন পেয়েছিলেন মৌসম। খান পরিবার ছেড়ে যে হাল লেবুবাবুর হয়েছে তেমনটাই মৌসমের হবে। জোট প্রসঙ্গে সোমেনবাবু জানান, জোট নিয়ে সমস্ত সিদ্ধান্ত নেবে এআইসিসি। বামফ্রন্টকে জোট করতে হলে জনসাধারণের সামনে এসে জোট করতে হবে। পর্দার পেছনে জোট করলে তা সাধারণ মানুষ মেনে নেবে না।


সোমেনবাবু আরও বলেন, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি বলে কিছু নেই। মানুষ তৃণমূলের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে বিকল্প চাইছে। সেই কারণেই বিজেপি ভাবছে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি’র হাওয়া চলছে। বাম-কংগ্রেস জোট হলে মানুষের বিশ্বাস জোটের দিকে চলে আসবে। সেক্ষেত্রে রাজ্যে বিজেপির ভোট অর্ধেক হয়ে যাবে।


নিজের বক্তব্যে তৃণমূলকেও একহাত নেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। তিনি বলেন, মুখ্যমন্ত্রী নারী দিবসে পথযাত্রা করছেন। অথচ এই রাজ্যই নারীপাচারে প্রথম, এই রাজ্যে প্রতিদিন নারীরা লাঞ্ছিত হচ্ছেন, ধর্ষিতা হচ্ছেন। শিক্ষাক্ষেত্রে দুর্নীতি, প্রশাসনে ক্রীতদাস প্রথা চালু করা, বেকারদের চাকরি নেই, শিল্প নেই, আলুচাষিরা না খেয়ে মারা যাচ্ছে, তাদের ঋণ মকুব হচ্ছে না। মানুষ এই সরকার থেকে আস্থা হারিয়েছে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page