top of page

গলায় অজগর জড়িয়ে কেরামতি, উদ্ধার করল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন

রক পাইথনের বাচ্চাকে গলায় ঝুলিয়ে মানুষের কাছে টাকা তুলছিল দুই সাপুড়ে। খবর পেয়ে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা ছুটে যান ওই এলাকায়। জেরা করতেই সাপ ফেলে ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দেয় দুই সাপুড়ে। সাপটি উদ্ধার করে চিকিৎসার পর বন দফতরের হাতে তুলে দেন ওই সংগঠনের সদস্যরা।


ওই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্য সুব্রত সাহা জানাচ্ছেন, পুরাতন মালদার সাহাপুর ছাতিয়ান মোড় এলাকা থেকে সাপটিকে উদ্ধার করা হয়েছে৷ এই সাপটির নাম রক পাইথন৷ যাকে আমরা অজগর নামেই চিনি৷ ছাতিয়ান মোড় এলাকায় এক সাপুড়ে গলায় সাপটিকে জড়িয়ে মানুষের কাছ থেকে টাকা আদায় করছিল৷ খবর পেয়ে তাঁরা সেখানে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই সাপটিকে ছেড়ে সেখান থেকে পালিয়ে যায় দুই সাপুড়ে৷ সাপটিকে জেলা বন দফতরের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।



ডেপুটি ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসার প্রদীপ গোস্বামী জানান, একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা সাপটি বন দফতরের হাতে তুলে দিয়েছে। এটি রক পাইথন৷ প্রাণী চিকিৎসকের পরামর্শ মেনেই ওই সংগঠনের সদস্যরা সাপটির প্রাথমিক শুশ্রূষা করেছেন৷ উদ্ধার হওয়া সাপটির দৈর্ঘ্য পাঁছ ফুট। এই প্রজাতির পূর্ণবয়স্ক সাপ প্রায় ৯-১০ ফুট পর্যন্ত লম্বা হয়৷ এই প্রজাতির সাপ শিডিউল ওয়ান, পার্ট টুয়ের মধ্যে রয়েছে৷ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী সাপটিকে তার স্বাভাবিক পরিবেশে ছেড়ে দেওয়া হবে৷ তবে কোথায় এটি ছাড়া হবে তা এখনও ঠিক হয়নি৷”




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page